সোমবার ৩রা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৮ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

আয়েশা (রা.)-এর সাহিত্যানুরাগ

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

আয়েশা (রা.)-এর সাহিত্যানুরাগ

রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর স্ত্রীদের মধ্যে আয়েশা সিদ্দিকা (রা.) ছিলেন মর্যাদার অধিকারী। তিনি তাঁর মেধা, প্রতিভা ও যোগ্যতা বলে এই মর্যাদা লাভ করেন। নবীজি (সা.)-এর জীবদ্দশায় তিনি যেমন তাঁর জ্ঞান, সান্নিধ্য, স্নেহ ও ভালোবাসার সৌরভে নিজেকে সমৃদ্ধ করেন, তাঁর ইন্তেকালের পর আয়েশা (রা.) নববী উত্তরাধিকার উম্মাহর মধ্যে ছড়িয়ে দেন।

নববী উত্তরাধিকার : আয়েশা (রা.) অন্যান্য বিষয়ের মতো নির্দোষ সাহিত্যানুরাগও রাসুলুল্লাহ (সা.)-এর কাছ থেকে লাভ করেছিলেন। কেননা বিশুদ্ধ ভাষার অনুশীলন ও নির্মল কাব্যের চর্চাকে নবীজি (সা.) নানাভাবে উৎসাহিত করেছেন। যেমন তিনি তাঁর মেম্বরের পাশে সময়ের অন্যতম প্রধান কবি হাসসান বিন সাবিত (রা.)-এর বসার স্থান নির্ধারণ করেন। তিনি মুসলিম কবিদের উৎসাহিত করে বলেছিলেন, ‘যারা অস্ত্র হাতে আল্লাহর রাসুলকে সাহায্য করে, তাদের নিজ কথা (কবিতা) দ্বারা সাহায্য করতে কে নিষেধ করেছে?’ (আহাদিসু উম্মিল মুমিনা আয়েশা : ৩/২২২)

 

সাহিত্যচর্চায় নবীজি (সা.)-এর অনুপ্রেরণা : আয়েশা (রা.)-এর সাহিত্যানুরাগকে রাসুলুল্লাহ (সা.) কখনো নিরুৎসাহিত করেননি; বরং উৎসাহিত করেছেন। গবেষক ইয়াসিন খলিফা আত-তাইয়িব লেখেন, ‘আয়েশা (রা.)-এর ভাষাগত দক্ষতা নিয়ে কারো দ্বিমত নেই। তিনি কবিতা মুখস্থ করতেন এবং তা বর্ণনা করতেন। রাসুলুল্লাহ (সা.) তাঁর কাছ থেকে কবিতা শুনে আনন্দিত হতেন এবং তাঁর মুখে বেশি বেশি কবিতা শুনতে চাইতেন।’ (ইজলাউল হাকিকাতি ফি সিরাতি আয়েশা সিদ্দিকা, পৃষ্ঠা ৬৩)

আয়েশা (রা.)-এর সাহিত্যানুরাগ : উম্মুল মুমিনিন আয়েশা (রা.)-এর সাহিত্যপ্রীতি সম্পর্কে তিনি আরো লেখেন, ‘কবিতার ওপর তাঁর দক্ষতা ছিল উত্তরাধিকার সূত্রে পাওয়া এবং তা কিছুটা পারিবারিক। কেননা তাঁর বাবা (আবু বকর সিদ্দিক রা.) তাঁর মতোই কবিতা মুখস্থ করতেন এবং কবিতার ছন্দমিল ঠিক করে দিতেন। তাঁর ভাই আবদুল্লাহ (রা.)-ও কবিতার ছন্দমিল ঠিক করে দিতেন। কবি লাবিদ ছিল তাঁর সবচেয়ে পছন্দের কবি। তিনি কবি লাবিদের এক হাজার পঙিক্ত মুখস্থ করেছিলেন। আয়েশা (রা.) অন্যদের উপদেশ দিতেন যেন তারা তাদের সন্তানকে কবিতা শিক্ষা দেয়। কেননা এতে তাদের ভাষা সুন্দর হবে। যেকোনো বিষয় তাঁর সামনে এলে তিনি উক্ত বিষয়ে কবিতা পাঠ করতেন।’ (ইজলাউল হাকিকাতি ফি সিরাতি আয়েশা সিদ্দিকা, পৃষ্ঠা ৬৩)

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৩:৪৮ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]