মঙ্গলবার ৪ঠা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৯শে আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

লেভানদোভস্কির জোড়া গোলে ফের শীর্ষে বার্সা

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   রবিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

লেভানদোভস্কির জোড়া গোলে ফের শীর্ষে বার্সা

রবার্ট লেভানদোভস্কি মাঠে নামবেন আর গোল করবেন না, সেটা যেন হতেই পারে না। তার সঙ্গে জ্বলে উঠল পুরো বার্সেলোনা দল। কাতালান ক্লাবের আক্রমণাত্মক ফুটবলের সামনে কোনো প্রতিরোধই গড়তে পারল না ম্যাচের অধিকাংশ সময় ১০ জন নিয়ে খেলা এলচে।

ন্যু ক্যাম্পে শনিবার লা লিগার ম্যাচটি ৩-০ গোলে জিতেছে বার্সেলোনা। লেভানদোভস্কির দুই অর্ধের দুই গোলের মাঝে একটি করেন মেমফিস ডিপাই।

সব প্রতিযোগিতা মিলিয়ে টানা পাঁচ জয়ের পর গত মঙ্গলবার চ্যাম্পিয়ন্স লিগে বায়ার্ন মিউনিখের মাঠে ২-০ গোলে হেরেছিল বার্সেলোনা। ঘরের মাঠে দারুণ পারফরম্যান্সে জয়ের পথে ফিরল জাভি হার্নান্দেজের দল।

প্রায় ৭৫ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে আক্রমণাত্মক শুরু করা বার্সেলোনাকে প্রথম ১২ মিনিটে ভালোভাবেই আটকে রাখে এলচে। কিন্তু এরপরই চরম ভুলটা করে বসে তারা।

সতীর্থের থ্রু পাস নিয়ন্ত্রণে নিতে শেষ বাধা গঞ্জালো ভেরদুর চ্যালেঞ্জ এড়িয়ে এগিয়ে যেতে বসেছিলেন লেভানদোভস্কি। আর কোনো উপায় না পেয়ে তাকে টেনে ফেলে দেন ভেরদু। তাকে সরাসরি লাল কার্ড দেখাতে দ্বিতীয়বার ভাবতে হয়নি রেফারিকে।

প্রতিপক্ষে একজন কম থাকার সুযোগে আরো চাপ বাড়ায় বার্সেলোনা। ম্যাচের ২০-২৬ মিনিটে দারুণ তিনটি সুযোগ তৈরি করে তারা। উসমান দেম্বেলের শট অল্পের জন্য লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। এরপর তার দূরের পোস্টে নেয়া ক্রসে বলে পা ছোঁয়াতে ব্যর্থ হন লেভানদোভস্কি।

টানা আক্রমণ করে যাওয়ার সুফল মেলে ৩৪তম মিনিটে। তরুণ লেফট-ব্যাক আলেসান্দ্রো বালদের ছয় গজ বক্সে বাড়ানো বল জালে পাঠাতে কেবল একটা টোকার দরকার ছিল, ঠিক সময়ে ছুটে গিয়ে সুযোগটা দারুণভাবে কাজে লাগান লেভানদোভস্কি।

লা লিগায় এই নিয়ে টানা পাঁচ ম্যাচে জালের দেখা পেলেন পোলিশ তারকা।

সাত মিনিট পর দারুণ নৈপুণ্যে ব্যবধান দ্বিগুণ করেন মেমফিস। এই গোলেও জড়িয়ে ১৮ বছর বয়সী বালদের নাম। তার পাস ডি-বক্সে ধরে ঠাণ্ডা মাথায় সঙ্গে লেগে থাকা প্রতিপক্ষের বাধা এড়িয়ে জোরাল কোনাকুনি শটে ঠিকানা খুঁজে নেন ডাচ ফরোয়ার্ড।

দু্ই মিনিট পর ব্যবধান আরও বাড়তে পারতো। লেভানদোভস্কির শট গোলরক্ষক ঠেকানোর পর কাছ থেকে জালে বল পাঠান পেদ্রি। তবে অফসাউডে ছিলেন তিনি।

দ্বিতীয়ার্ধের তৃতীয় মিনিটেই নিজের দ্বিতীয় গোলের দেখা পান লেভানদোভস্কি। ডান দিক থেকে দেম্বেলের ছয় গজ বক্সে বাড়ানো বলে ঠিকমতো মেমফিস শট নিতে পারেননি। গোলরক্ষকও পারেননি বিপদমুক্ত করতে। ফাঁকায় আলগা বল পেয়ে জালে পাঠান সাবেক বায়ার্ন মিউনিখ তারকা।

স্পেনের শীর্ষ লিগে ৬ ম্যাচে লেভানদোভস্কির গোল হলো ৮টি। বার্সেলোনার জার্সিতে তার মোট গোল হলো ১১টি। ৭১তম মিনিটে লেভার হ্যাটট্রিক হতে পারত। তবে গাভির থ্রু পাস ডি-বক্সে ধরে ক্রসবারের ওপর দিয়ে উড়িয়ে মারেন তিনি। এরপরই তাকে তুলে নেন কোচ।

বাকি সময়েও একটানা আক্রমণ করে যায় বার্সেলোনা। সুযোগও আসে। তবে কাজে লাগাতে পারেনি কেউ। নির্ধারিত সময়ের শেষ মিনিটে গোলের উদ্দেশ্যে প্রথম চেষ্টা চালায় এলচে। অবশ্য কার্লোসের হেড সোজাসুজি জমে যায় বার্সেলোনা গোলরক্ষকের হাতে।

ম্যাচ কতটা একপেশে ছিল, তা ম্যাচ পরিসংখ্যানেই ফুটে ওঠে। তিন-চতুর্থাংশের বেশি সময় বল দখলে রেখে গোলের জন্য ২৫টি শট নেয় বার্সেলোনা, যার ৯টি ছিল লক্ষ্যে। আর ঘর সামলাতে ব্যস্ত এলচের প্রচেষ্টা ওই একটিই, শেষ মিনিটে!

রায়ো ভায়োকানোর বিপক্ষে ড্রয়ে আসর শুরুর পর এই নিয়ে টানা পাঁচ ম্যাচে জিতল বার্সেলোনা। শীর্ষে ওঠা দলটির পয়েন্ট ১৬। এক ম্যাচ কম খেলা রিয়াল মাদ্রিদের পয়েন্ট ১৫। রোববার নগর প্রতিদ্বন্দ্বী অ্যাথলেটিকো মাদ্রিদের বিপক্ষে জিতলে শীর্ষে ফিরবে কার্লো আনচেলত্তির দল।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৭:২৯ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]