রবিবার ২৯শে জানুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ১৫ই মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দক্ষিণ-বলিউড বিতর্কে মুখ খুললেন ঐশ্বরিয়া

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

দক্ষিণ-বলিউড বিতর্কে মুখ খুললেন ঐশ্বরিয়া

এক ডজনের বেশি সিনেমা ইন্ডাস্ট্রি রয়েছে ভারতে। কয়েক বছর আগেও সবচেয়ে প্রভাবশালী ছিলো বলিউড। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে দৃশ্যপটে পরিবর্তন আসছে। দক্ষিণ ভারতের ইনাস্ট্রিগুলো সাফল্য পাচ্ছে বেশি। শুধু ভারতেই নয়, আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও তামিল, তেলেগু, মালায়লাম কিংবা কন্নড় ভাষার সিনেমা ব্যাপক গ্রহণযোগ্যতা পাচ্ছে।

দক্ষিণী সিনেমা নাকি বলিউড, কে সেরা? এই নিয়ে বিতর্ক বহুদিনের। গত কয়েক বছরে বলিউডের অধিকাংশ সিনেমা ফ্লপ এবং দক্ষিণের ‘কেজিএফ’, ‘পুষ্পা’র মতো সিনেমা ব্লকবাস্টার হওয়ার সুবাদে বিতর্কটি জোরালো হয়েছে। অনেক তারকাও বিষয়টি নিয়ে কথা বলেছেন।

এবার এই চর্চায় সামিল হলেন সাবেক বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। তিনি মনে করেন, এখন সিনেমার মধ্যে কোনও সীমানা নেই। দুদিন পরই মুক্তি পেতে যাচ্ছে ঐশ্বরিয়া অভিনীত তামিল সিনেমা ‘পন্নিয়িন সেলভান: ওয়ান’। এই সিনেমার প্রচারে এসেই দক্ষিণ-বলিউড বিতর্কে কথা বলেন তিনি।

বচ্চনবধূর ভাষ্য, ‘এটা অসাধারণ একটা সময়; যখন সিনেমা ও তারকা নিয়ে গতানুগতিক চিন্তার সীমানা ভেঙে ফেলতে হবে। আমি মনে করি, এসব বাধা এখন আর নেই। মানুষ আমাদের সিনেমাকে জাতীয়ভাবে চেনে। তারা প্রতিটি অঞ্চলের সিনেমা দেখতে চায়।’

‘পন্নিয়িন সেলভান: ওয়ান’ সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন ভারতের খ্যাতিমান নির্মাতা মণি রত্নম। ঐতিহাসিক প্রেক্ষাপটে নির্মিত এ সিনেমায় ঐশ্বরিয়ার সঙ্গে অভিনয় করেছেন চিয়ান বিক্রম, কার্থি, তৃষা কৃষ্ণান, সভিতা ধুলিপালা প্রমুখ। প্রায় ৫০০ কোটি রুপি বাজেটে সিনেমাটি তৈরি করা হয়েছে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর এটি মুক্তি পাচ্ছে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২:৫২ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১
১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
১৯২০২১২২২৩২৪২৫
২৬২৭২৮২৯৩০  
সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]