বুধবার ৭ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২২শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কলকাতায় দুর্গাপূজায় গান্ধীকে অসুর সাজানো নিয়ে বিতর্ক

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২ | প্রিন্ট

কলকাতায় দুর্গাপূজায় গান্ধীকে অসুর সাজানো নিয়ে বিতর্ক

ভারতের দক্ষিণ কলকাতার একটি পূজা নিয়ে বিতর্ক চলছে। সেখানে মোহনদাস করমচাঁদ গান্ধীকে হিন্দুদের দেবী দুর্গার অসুর হিসেবে তুলে ধরা হয়েছে। দক্ষিণ কলকাতার রুবি পার্কের পূজায় দেখা গেছে দেবী দুর্গা অসুররূপী গান্ধীকে হত্যা করছেন।

পূজার উদ্যোক্তা ভারতের দক্ষিণপন্থী অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভা; যার নেতা নাথুরাম গডসে ১৯৪৮ সালে গান্ধীকে হত্যা করেছিলেন। তিনি আরেক হিন্দুত্ববাদী সংগঠন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘেরও (আরএসএস) সদস্য ছিলেন।

 

গান্ধীকে অসুর সাজানো নিয়ে বিতর্ক তুঙ্গে উঠতেই বদলে গেছে রুবি পার্কের অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভার দুর্গাপূজার ‘অসুর’-এর চেহারা। সপ্তমীর রাতে চুল আর গোঁফ লাগিয়ে চেহারা পুলিশ বদলে দিয়েছে বলে দাবি পূজা উদ্যোক্তাদের।

এই পরিবর্তন যে তাদের একেবারেই পছন্দ নয়, সেটাও জানিয়েছেন পূজা কমিটির লোকজন। এর প্রতিবাদে পূজামণ্ডপের সামনেই অষ্টমীতে অবস্থান বিক্ষোভে বসেছেন তারা।

তারা এও জানিয়েছেন, পূজার মূল উদ্যোক্তা চন্দ্রচূড় গোস্বামী। বিষয়টি নিয়ে তার বিরুদ্ধে এরই মধ্যে থানায় অভিযোগ দায়ের হয়েছে। তার বক্তব্য, আইনি পথেই তার মোকাবিলা করা হবে।

 

গতকাল রবিবার থেকেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে রুবি পার্কের অখিল ভারতীয় হিন্দু মহাসভার দুর্গাপূজার ছবি। তাতে দেখা যায়, ওই পূজার দুর্গা প্রতিমার সঙ্গে যে অসুর মূর্তি রয়েছে তার টাকমাথা এবং চোখে চশমা।

পাশাপাশি, মূর্তিটিকে পরানো হয়েছে সাদা ধুতি। অভিযোগ উঠতে শুরু করে, ওই পূজায় যে অসুর মূর্তি তৈরি করা হয়েছে তার সঙ্গে মহাত্মা গান্ধীর চেহারার দারুণ মিল রয়েছে। এই অসুর মূর্তি ঘিরেই বিতর্কের সূত্রপাত।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২:৫০ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৩ অক্টোবর ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]