মঙ্গলবার ৬ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

দামুড়হুদায় উন্মুক্ত মৃত নদী দখলে নিয়ে মাছ চাষ, সংঘর্ষের আশঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বুধবার, ১৯ অক্টোবর ২০২২ | প্রিন্ট

দামুড়হুদায় উন্মুক্ত মৃত নদী দখলে নিয়ে মাছ চাষ, সংঘর্ষের আশঙ্কা

চুয়াডাঙ্গার দামুড়হুদা উপজেলার কাদিপুর-লোকনাথপুর পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া উন্মুক্ত মৃত  নদী দখল করে মাছের পোনা অবমুক্ত করে বাণিজ্যিকভাবে মাছ চাষ করার অভিযোগ উঠেছে। এতে এই মরা নদী থেকে কেউ মাছ ধরতে পারছে না। মাছ ছাড়ায় বড় ধরনের সংঘর্ষের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে। নদীটি উন্মুক্ত করার দাবি জানিয়েছে এলাকার সচেতন মহল।

চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রসাশকের কার্যালয় সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার কাদিপুর-লোকনাথপুর গ্রামের মধ্যে প্রায় ১০০ বিঘা মরা নদী রয়েছে। নদীটির বিভিন্ন অংশে পানি শুকিয়ে যাওয়ায় নদীটি বদ্ধ ঘোষণা করে পুনর্খনন করে ইজারাযোগ্য করে তোলার পর ইজারা দেওয়া হবে। দীর্ঘদিন আগে নদীটির ইজারা বাতিল করে উন্মুক্ত ঘোষণা করা হয়েছে।

 

হাউলি ইউপির সদস্য কাদিপুর গ্রামের শাহাজামাল মেম্বর বলেন, উন্মুক্ত এই নদী থেকে এলাকাবাসী নিজেদের ইচ্ছামতো মাছ ধরার সুযোগ পাচ্ছিল। উন্মুক্ত কোনো কিছু কেউ ব্যক্তিগতভাবে ব্যবহার করতে পারেন না। এলাকার ফারুক হোসেন, ওসমান আলি, হাফিজুর গং ওই নদীতে বাণিজ্যিকভাবে চাষের জন্য মাছ ছেড়েছে। এতে এলাকার সাধারণ মানুষ মাছ ধরা থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। এতে করে এলাকার মানুষ ফুসে উঠেছে। যেকোনো সময় সংঘর্ষের আশঙ্কা দেখা দিয়েছে।

এ বিষয়ে ওসমান আলি বলেন, নদীটির দুই পাশে থাকা মালিকানা জমির মালিকদের জমির পরিমাণ হিসাব করে তাদেরকে বিভিন্ন অংকের প্রায় তিন লক্ষ টাকা দেওয়া হয়েছে। এতে তারা উপকৃত হয়েছেন। দুই লক্ষ টাকার মতো মাছ ছাড়া হয়েছে। পাট পচানো মৌসুমে মাছ ধরা উন্মুক্ত করে দেওয়া হয়। তিনি আরো বলেন, এর আগে যারা আমাদের সাথে থেকে মাছ চাষ করেছে, এবার তারা আমাদের থেকে বেরিয়ে গিয়ে ঝামেলা পাকাচ্ছে। এলাকাবাসী চাইলে আমরা মাছ ধরে নিয়ে ছেড়ে দেব।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৪:৫৬ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ১৯ অক্টোবর ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]