শনিবার ১০ই ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ২৫শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

নারীদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ছে যে কারণে

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   মঙ্গলবার, ২৫ অক্টোবর ২০২২ | প্রিন্ট

নারীদের হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ছে যে কারণে

আধুনিক জীবন যাপন বদলে দিয়েছে নারীর প্রতিদিনকার রুটিন। বদল এসেছে খাদ্যাভাস, ঘুম এবং চিন্তা চেতনায়। সব মিলিয়ে নারীর হৃদরোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকিও বাড়ছে।

বিশেষজ্ঞরা বলেন, প্রজননক্ষম সময়ে নারীর ‘করোনারি হার্ট ডিজিজ’-এ আক্রান্ত হওয়ার শঙ্কা কম। এই সময় নারীর শরীরে ইস্ট্রোজেন হরমোনের উৎপাদন ঠিক থাকে। হৃদ্‌রোগ সামলে রাখে সেই হরমোন। তবে বয়সের সঙ্গে সঙ্গে ইস্ট্রোজেনের পরিমাণ কমতে থাকে। ফলে হৃদ্‌রোগ বাসা বাঁধে নারীর শরীরে।

>> অত্যধিক মানসিক চাপ, কর্মব্যস্ত জীবন, সঠিক সময়ে খাবার না খাওয়া— দৈনন্দিন যাপনের মধ্যেই নিহিত থাকে হৃদ্‌রোগের কারণ।

‘সেন্টারস অফ ডিজিজ কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন’ -এর তথ্য, ‘আমেরিকায় প্রতি পাঁচ জন মহিলার মধ্যে এক জন হৃদ্‌রোগে মারা যান।’

পুরুষ আর নারীর মধ্যে হৃদ্‌রোগের উপসর্গগুলো অধিকাংশ ক্ষেত্রেই আলাদা হয়। বিভিন্ন সমীক্ষায় দেখা গেছে, নারীর ক্ষেত্রে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হওয়ার আগে বুকে ব্যথার মতো উপসর্গ দেখা যায় না। এক্ষেত্রে মূলত ক্লান্তি, শ্বাসকষ্ট, কাঁধ ও ঘাড়ে ব্যথার মতো উপসর্গগুলিই প্রকট হয়। কী কী কারণে নারীর হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি বাড়ে?

>>অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায় অনেক নারীই উচ্চ রক্তচাপের সমস্যায় ভোগেন। এ সময়ে রক্তচাপ বেড়ে গেলে রক্তনালিকাগুলো দিয়ে রক্ত ও অক্সিজেন পর্যাপ্ত মাত্রায় মস্তিষ্কে পৌঁছাতে পারে না। এ ক্ষেত্রে হার্ট অ্যাটাকের ঝুঁকি অনেকটা বেড়ে যায়।

>>এই অভ্যাস বাড়িয়ে দেয় হৃদ্‌রোগের আশঙ্কা। ধূমপান বন্ধ করে দিলে হৃদ্‌রোগের আশঙ্কা কমে শতকরা আশি ভাগ। অতিরিক্ত মদ্যপান থেকেও নিজেকে দূরে সরিয়ে রাখুন। এতেও হৃদ্‌রোগের আশঙ্কা বাড়ে।

>>ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, ও উচ্চ কোলেস্টেরলের সমস্যা থাকলে হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা অনেক বেড়ে যায়। এই সব রোগের কারণে রক্তনালিকাগুলি সঙ্কুচিত হয়ে পড়ে। রক্ত প্রবাহে বাধা তৈরি হয়। ফলস্বরূপ হৃদ্‌যন্ত্রের উপর চাপ পড়ে। কার্ডিয়োভাস্কুলার রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কাও বেড়ে যায়।

>>মানসিক চাপের কারণেও নারীর মধ্যে এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি বাড়ে। পর্যাপ্ত ঘুমের অভাব হৃদ্‌রোগের অন্যতম বড় অনুঘটক। শরীরকে সুস্থ রাখতে দৈনিক ৬ থেকে ৮ ঘণ্টা ঘুম অবশ্যই প্রয়োজন। কর্মব্যস্ততা এবং অবসাদের কারণে অনেক মহিলাই অনিদ্রার সমস্যায় ভোগেন। এতেও কিন্তু ঝুঁকি বাড়ে হার্ট অ্যাটাকের।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৫:২২ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২৫ অক্টোবর ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

দেহাতি চিকেন
(50 বার পঠিত)
advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]