বৃহস্পতিবার ১লা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ | ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

বাংলাদেশের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকাও চাপে আছে

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বুধবার, ২৬ অক্টোবর ২০২২ | প্রিন্ট

বাংলাদেশের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকাও চাপে আছে

নেদারল্যান্ডসকে হারিয়ে বিশ্বকাপের সুপার টোয়েলভে শুভ সূচনা পেয়েছে বাংলাদেশ। মূলত পেসারদের দাপুটে পারফরম্যান্সে ডাচদের ৯ রানে হারিয়ে ১৫ বছর পর টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের মূলপর্বে জয় পেয়েছে টিম টাইগার্স। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে বৃহস্পতিবার (২৭ অক্টোবর) সিডনিতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে মাঠে নামবে টাইগাররা।

নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাট করে ১৪৪ রান সংগ্রহ করেছিল টাইগাররা। অস্ট্রেলিয়ার মতো পিচে এত স্বল্প পুঁজি নিয়ে আরেকটি হারের শঙ্কা উড়িয়ে দেয়া যাচ্ছিল না। তবে বোলিংয়ে এসে শুরুতেই যে ঝলক দেখালেন তাসকিন, তাতে বদলে যায় পুরো ম্যাচের চিত্রই। হ্যাটট্রিকের সুযোগ মিস হলেও প্রথম দুই বলেই তিনি শিকার করেন ২ উইকেট। শেষদিকে বিপজ্জনক হয়ে উঠা কলিন অ্যাকারম্যানকে ফেরানোর পাশাপাশি ডেথ ওভারে তুলে নেন ২ উইকেট। ক্যারিয়ার সেরা বোলিংয়ে ৪ ওভারে ২৫ রান খরচায় ৪ উইকেট শিকার করেন তাসকিন।

ম্যাচের আগের দিন বুধবার (২৬ অক্টোবর) সংবাদ সম্মেলনে যখন অধিনায়ক সাকিব হাজির হলেন, তখন ঘুরে ফিরে আসল তাসকিন প্রসঙ্গ। যেখানে টাইগার পেসারকে নতুন করে পরিচয় করিয়ে দিলেন সাকিব। বলেন, ‘ মাশরাফীর অবসরের পর তাসকিনই এখন বাংলাদেশের পেস ইউনিটের লিডার। গত ২-৩ বছর ধরে বাংলাদেশের হয়ে সে অসাধারণ ভালো খেলছে। যেটা তার নেতৃত্বেরই উদাহরণ।’

নেদারল্যান্ডসের বিপক্ষে চার নিয়মিত বোলার নিয়ে ম্যাচ জিতলেও, পঞ্চম বোলারের প্রসঙ্গটা বেশ যৌক্তিকই ছিল। পার্ট টাইম বোলার হিসেবে সে ম্যাচে যাদের খেলানো হয়েছে তারা কেউই সুবিধা করতে পারেননি। মোসাদ্দেক হোসেন এক ওভার করে দিয়েছেন ১৪ রান। সৌম্য সরকার ৩ ওভারে দিয়েছেন ২৯ রান।

আর তাই প্রোটিয়াদের বিপক্ষে পঞ্চম বোলার নিয়ে বাংলাদেশ মাঠে নামবে কি না, এ প্রশ্নের উত্তরে সাকিব বলেন, এখনই বলতে চাই না। আমরা প্রতিপক্ষ, কন্ডিশন দেখে সিদ্ধান্ত নেবো। বিশ্বকাপের প্রতিটি ম্যাচের জন্যই আমরা এভাবে নিজেদের প্রস্তুত করেছি। এখানে ডাইমেনশন ভিন্ন, উইন ফ্যাক্টর ভিন্ন আবার আবহাওয়াও ভিন্ন। সব কিছু চিন্তা করেই আমরা পরিকল্পনা করছি। সব সিদ্ধান্ত আমাদের পক্ষে নাও যেতে পারে। তবে আমরা এভাবেই পরিকল্পনা সাজিয়েছি।’

এদিকে, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রথম ম্যাচটি বৃষ্টির কারণে পরিত্যক্ত হওয়ায় পয়েন্ট ভাগ করতে হয়েছে। ৭ ওভারে ৬৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাটিংয়ে নেমে ৩ ওভারে বিনা উইকেটে ৫১ রান তুলে ফেলেছিল প্রোটিয়া দুই ওপেনার। নিশ্চিতভাবেই দক্ষিণ আফ্রিকাই ম্যাচটা জিততো। কিন্তু বৈরী আবহাওয়ার কারণে শেষমেশ পয়েন্ট ভাগাভাগি করতে হয়। আর তাই সেমিফাইনালের দৌড়ে টিকে থাকতে বাংলাদেশের বিপক্ষে জয় ছাড়া কিছু ভাববে না টেম্বা বাভুমার দলও।

বাংলাদেশের বিপক্ষে দক্ষিণ আফ্রিকা চাপে থাকবে বলে মন্তব্য করেছেন সাকিব। তিনি বলেন, দক্ষিণ আফ্রিকার জন্যও ম্যাচটি খুব গুরুত্বপূর্ণ। প্রায় বাঁচা-মরার ম্যাচ। তাই ওরা একটু হলেও চাপে থাকবে। আর আমরা এমন একটা মাঠে এসেছি, যেখানে আমরা যেকোনো দলের সঙ্গে খেলতে পছন্দ করব। কারণ, অস্ট্রেলিয়ার যেকোনো উইকেটের চেয়ে এখানে (সিডনি) সাধারণত স্পিনারদের জন্য সুবিধাটা বেশি থাকে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৭:৪১ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ২৬ অক্টোবর ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]