বুধবার ২১শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

শিরোনাম >>
শিরোনাম >>

‘সস্তার কাঞ্চনজঙ্ঘা’ দেখিয়ে সমালোচনার মুখে কলকাতার ধারাবাহিক

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বুধবার, ১৬ নভেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

‘সস্তার কাঞ্চনজঙ্ঘা’ দেখিয়ে সমালোচনার মুখে কলকাতার ধারাবাহিক

কলকাতার একটি ধারাবাহিকে ‘সস্তার কাঞ্চনজঙ্ঘা’ দেখিয়ে সমালোচনার মুখে পড়েছে কর্তৃপক্ষ। শুধু তাই নয়,  হঠাৎ করেই নাকি গল্প লেজেগোবরে করে ফেলা হয়েছে।

মিঠাই নামের ওই ধারাবাহিকে নায়িকা মিঠাই রানির মৃত্যুর সঙ্গে সঙ্গে এক লাফে বদলে গেছে গল্প। মোদক বাড়ির মিষ্টি বউমা মিঠাই রানির অকালমৃত্যুর পর এখন সিরিয়ালের গল্প এগিয়ে গিয়েছে বেশ কয়েক বছর।

দেখা গেছে, সিরিয়াল লিপ নেওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই শ্রী, রুদ্র, নিপা নন্দা সবার লুকেই এসেছে একটা বিরাট পরিবর্তন।  একদিকে উচ্ছেবাবু রাতারাতি ময়রা থেকে পুলিশ অফিসার হয়ে গিয়েছে। মিঠাই মারা যাওয়ার পর মিঠি হিসেবে সিরিয়ালে এন্ট্রি নিয়েছেন সৌমিতৃষা।

 

প্রথমত, করপোরেট চাকরিজীবী, পরে ময়রা সিদ্ধার্থ মোদকের সব ছেড়ে আচমকা পুলিশ অফিসার হয়ে যাওয়ার লজিক অনেকেই খুঁজে পাচ্ছে না। মিঠাইয়ের খুনিদের শাস্তি দিতেই নাকি পুলিশ হয়েছে সিদ্ধার্থ! রাতারাতি উচ্ছেবাবুর এই ভোলবদলে অবাক অনেকেই।

অন্যদিকে মিঠির এন্ট্রি দৃশ্য দেখে অনেকেরই হাসি থামছে না। পাহাড়ের মেয়ে মিঠি। ধবধবে সাদা পাহাড়ের সামনেই প্রথমবার দেখা মিলেছে মিঠির। যদিও সেই দৃশ্য থেকে কারো বুঝতে হবে না ওই দৃশ্য ক্রোমা স্ক্রিনে শুট করা, তারপর গ্রাফিকসের মাধ্যমে পাহাড় বসানো হয়েছে। কিন্তু সেই গ্রাফিকসের কাজ এতটাই নিম্নমানের যা চোখে লেগেছে ভীষণরকমভাবে।

যা দেখে হতাশ ভক্তরা। অনেকেই লিখছেন, ‘সস্তার কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখালো, টাকা নেই জি কাকুর।’ মিঠির এই লুক দেখে অনেকে লিখেছেন, ‘পুরো কিরণমালার পিশাচিনির মতো লাগছে।’ কেউ আবার লিখেছেন, ‘এ তো পুরো কার্টুন লাগছে।’

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৩:১৮ পূর্বাহ্ণ | বুধবার, ১৬ নভেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]