শনিবার ২২শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভোট গ্রহণ চলছে, চরম প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শনিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

ভোট গ্রহণ চলছে, চরম প্রতিদ্বন্দ্বিতার আভাস

জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধি এবং তিন বছর ধরে চলা রাজনৈতিক অন্তর্দ্বন্দ্বের মধ্যেই মালয়েশিয়ায় প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে।

সংবাদমাধ্যম আল-জাজিরার এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, দেশটির প্রধানমন্ত্রী সাবরি ইয়াকুব ‘স্থিতিশীল পরিস্থিতি’ পুনরুদ্ধারের জন্য আগাম নির্বাচনের আহ্বান জানিয়েছিলেন।

তবে দেশটির সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, সাবরি ইয়াকুব নির্বাচনে জয়ী হবেন ভেবেই আগাম নির্বাচন দিয়েছেন। সে ক্ষেত্রে ইসমাইল সাবরীর বারিসান ন্যাশনাল (বিএন) জোট, পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষে ২২২টি আসনের সংখ্যাগরিষ্ঠতা আশা করছে।

তবে বিরোধীদলীয় নেতা আনোয়ার ইব্রাহিমের পাকাতান হারাপান এবং মুহিউদ্দিন ইয়াসিনের অধীন পেরিকাতান ন্যাশনালের (পিএন) কাছ থেকে কঠোর চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে।

শনিবার (১৯ নভেম্বর) স্থানীয় সময় সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। ভোটকেন্দ্র খোলার আগেই ভোটাররা আসতে শুরু করেন। ভোটকেন্দ্রের বাইরে ভোটারদের লাইন দেখা যায়। মালয়েশিয়ার রাজধানী কুয়ালালামপুরে মেঘাচ্ছন্ন আকাশ এবং গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি হওয়া সত্ত্বেও নাগরিকরা স্বতঃস্ফূর্তভাবে ভোটকেন্দ্রে ভোট দিচ্ছেন।

দেশটিতে অবাধ ও সুষ্ঠু নির্বাচনের পক্ষে প্রচারণাকারী সুশীল সমাজের অংশীদার বেরসিহ-এর চেয়ারম্যান টমাস ফ্যান আল জাজিরাকে বলেন, ‘ভোট দেয়ার জন্য জনগণের মধ্যে সংকল্প এবং উৎসাহ রয়েছে।’ দেশটির নির্বাচন কমিশন জানিয়েছে, স্থানীয় সময় দুপুর ২টা পর্যন্ত ৪২ শতাংশ ভোটার তাদের ভোট দেয়া শেষ করেছেন। মালয়েশিয়ায় ২১ মিলিয়ন মানুষ ভোট দিতে পারবেন। এদের মধ্যে ৬ মিলিয়ন ভোটার প্রথমবারের মতো ভোট দেবেন বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

শুক্রবার দেশটির স্বাধীন জনমত জরিপ সংস্থা মের্দেকা সেন্টার পূর্বাভাস দিয়েছে যে আনোয়ারের সংস্কারপন্থি পাকাতান হারাপান জোট ৮২টি আসন এবং মুহিউদ্দিনের পেরিকাতন জোট ৩৪টি আসন পাবে। আর ৪৫ আসনে চরম প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে। সেখানে কারা জয়ী হবে, ভোটের ফলাফল না পাওয়া পর্যন্ত বলা সম্ভব নয়।

ইসমাইলের বারিসান ন্যাশনাল জোট, যারা জয়ের আশায় আগাম নির্বাচনের আহ্বান জানিয়েছে, ৫১টি আসন পেতে পারে। মের্দেকা সেন্টারের জরিপে দেখা গেছে, দেশটির ৩৩ শতাংশ মানুষ আনোয়ারকে পরবর্তী প্রধানমন্ত্রী হিসেবে দেখতে চান। সে ক্ষেত্রে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী পাবেন ১৭ শতাংশ মানুষের সমর্থন।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৮:১০ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ১৯ নভেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

(267 বার পঠিত)
(208 বার পঠিত)
advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]