রবিবার ২৫শে ফেব্রুয়ারি, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১২ই ফাল্গুন, ১৪৩০ বঙ্গাব্দ

আলফাডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সাইফারের বিকৃত যৌন ভিডিও চ্যাটিং ভাইরাল

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   মঙ্গলবার, ২২ নভেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

আলফাডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সাইফারের বিকৃত যৌন ভিডিও চ্যাটিং ভাইরাল

ফরিদপুর প্রতিনিধি
ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র ও পৌর আওয়ামী লীগ সভাপতি সাইফুর রহমান সাইফারের বিকৃত যৌন ভিডিও চ্যাটিং ভাইরাল হয়ে এখন ফেসবুক আর ইউটিউবে ঘুরছে।
এ ঘটনায় স্থানীয় আওয়ামী লীগ বিব্রত। ক্ষুব্ধ এলাকার সাধারণ জনগণ, ধর্মপ্রাণ মানুষ আর সুশীল সমাজও। পৌরপিতার বিকৃত যৌনাচার প্রকাশ্যে আসায় পৌরসভার কর্মকর্তা, কর্মচারী আর স্থানীয় প্রশসানেও মেয়র সাইফারকে নিয়ে নানামুখী কানাঘুষা চলছে।
যদিও মেয়র সাইফার ভিডিওটি সুপার এডিট করে তাকে মানুষের কাছে ছোট করার চক্রান্ত বলে দাবি করছেন।
ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, মেয়র সাইফার ভিডিও চ্যাটিংয়ে তার বিশেষ অঙ্গ প্রদর্শন করছেন একজন নারীকে। ওই নারী তার শরীরের বিশেষ বিশেষ অঙ্গ আবার আওয়ামী লীগ নেতা সাইফারকে প্রদর্শন করছেন। উভয়ে যৌন উত্তেজক কথাবার্তাও বলছেন।
হঠাৎ এই ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে স্থানীয় ভাবে ক্ষোভ ও বিব্রতকর এক পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়।
থানা আওয়ামী লীগের একজন সভাপতি নাম প্রকাশ না করার শর্তে বলেন, মেয়র সাইফার বরাবরই বেপরোয়া। তার আয়ের কোনো বৈধ উৎসই নেই। পৌরসভার বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকাণ্ডের টেন্ডার থেকে ১০-১৫ শতাংশ কমিশন নেন প্রকাশ্যে। বৈধ আয় না থাকা সত্ত্বেও তার বিশাল পাঁচতলা অট্টালিকা, গাড়ি আর অঢেল সম্পত্তিই তার বেহিসেবি জীবনযাপনের উদাহরণ।
থানা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহাদুল হাসান আলাপকালে এই প্রতিনিধিকে বলেন, একজন নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসেবে মেয়রের যৌন ভিডিও দেখে তারা মর্মাহত হয়েছেন। এটি আওয়ামী লীগ ও জনগণের জন্য লজ্জা।
প্রসঙ্গত, আলফাডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র সাইফারের অনিয়ম, দুর্নীতি ও অবৈধ সম্পদ অর্জনের বিষয়ে ২০২০ সাল থেকে অনুসন্ধান চলছে (নথি নং-১১৯/২০২০)। এই অনুসন্ধান এখনো চলমান।
মেয়র সাইফার ও তার সন্ত্রাসী বাহিনীর দাপটে অসহায় আলফাডাঙ্গার স্থানীয় জনগণ। মেয়রের দুই ভাই জাপান ও ওসমান মোল্যার বিরুদ্ধেও মাদক বাণিজ্য, অবৈধ অস্ত্রবহনসহ অসংখ্য অভিযোগ আছে। এমনকি পুলিশকে মারধর ও সাংবাদিক নির্যাতনের মামলাও আছে।
কিছুদিন আগে মেয়র সাইফারের ভাই জাপানকে সাংবাদিক নির্যাতনের ঘটনায় ঢাকা থেকে র্যা ব গ্রেপ্তার করে। আলফাডাঙ্গা থানায় মামলা নং-০৩, তারিখ-২.৮.২০২২। সম্প্রতি এই মামলায় (ধারা ৩৪১/৩২৩/৩৭৯/৫০৬) তদন্তকারী কর্মকর্তা জাহাঙ্গীর আলম আদালতে অভিযোগপত্র দিয়েছেন।
সার্বিক বিষয়ে জানতে চেয়ে আলফা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এস এম আকরাম হোসেনের সঙ্গে যোগাযোগ করা হলে তিনি কোনো রকম মন্তব্য করতে অস্বীকার করেন।r

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১১:২৫ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২২ নভেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]