রবিবার ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবসে সহিংসতাবিরোধী বিক্ষোভ

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবসে সহিংসতাবিরোধী বিক্ষোভ

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবসে শুক্রবার (২৫ নভেম্বর) সহিংসতাবিরোধী বিক্ষোভে উত্তাল ছিল বিশ্বের বিভিন্ন দেশ। এদিন ব্যানার ও প্ল্যাকার্ড হাতে রাস্তায় নামেন স্পেনের হাজারো মানুষ। এ সময় দেশটিতে নারীর সুরক্ষা ও মানবাধিকার নিশ্চিতে সঠিক আইন প্রণয়নের দাবি জানান তারা। নারীর ওপর সহিংসতার প্রতিবাদে বিক্ষোভ হয়েছে দক্ষিণ আমেরিকার বেশ কয়েকটি দেশেও। খবর রয়টার্সের।

নারীর প্রতি সহিংসতা রুখতে ব্যানার ও প্ল্যাকার্ড হাতে স্পেনের মাদ্রিদ, বার্সেলোনাসহ বিভিন্ন শহরে বিক্ষোভে জড়ো হন হাজারো নারী। দেশটির নারীবাদী একটি সংগঠনের আহ্বানে সাড়া দিয়ে বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশ নেন তারা। যোগ দেন বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া শিক্ষার্থী থেকে শুরু করে নানা বয়সী পুরুষও।

আন্তর্জাতিক নারী নির্যাতন প্রতিরোধ দিবস উপলক্ষে এদিন বাদ্য-বাজনা বাজিয়ে ও গান গেয়েও প্রতিবাদ জানাতে দেখা যায় বিক্ষোভকারীদের। একইসঙ্গে শারীরিক ও মানসিক নির্যাতনের শিকার হয়ে স্পেনে নারী মৃত্যুর ঘটনার তীব্র প্রতিবাদও জানান তারা।

এক নারী বিক্ষোভকারী বলেন, এ যুগে এসেও নারীরা সব জায়গায় নিরাপদ নন। নিজেদের মৌলিক অধিকারটুকু নিশ্চিতেও আমাদের রাস্তায় নামতে হচ্ছে। নারীর সুরক্ষা ও মানবাধিকার নিশ্চিতে সঠিক আইন প্রণয়নের দাবি আমাদের।

প্রতি ২৮ ঘণ্টায় স্পেনে একজন নারী ধর্ষণের শিকার হচ্ছেন। চলতি বছর প্রায় ২০০ নারী শারীরিক নির্যাতনের শিকার হয়েছেন।

এদিন নারী নির্যাতনবিরোধী বিক্ষোভ হয় দক্ষিণ আমেরিকার বেশ কয়েকটি দেশেও। মেক্সিকো ও চিলির বড় শহরগুলোতে পুলিশ আন্দোলকারীদের বাধা দিলে দুপক্ষের মধ্যে ধস্তাধস্তির ঘটনাও ঘটে। তবে প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করেই বিক্ষোভ চালিয়ে যান নারীরা।

একজন বিক্ষোভকারী বলেন, লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানাতেই আমরা রাস্তায় নেমেছি। নারীকে অধিকার ও যথাযথ মর্যাদাসহ বাঁচতে দিন।

বলিভিয়াতেও প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করে আন্দোলনকারীরা বিক্ষোভ করলে, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে দফায় দফায় ফাঁকা গুলি ছোড়ে পুলিশ।

একই ইস্যুতে উত্তাল তুরস্কও। ইস্তাম্বুলে আন্দোলনকারীরা রাস্তায় নামলে পুলিশের সঙ্গে ব্যাপক সংঘর্ষ হয়। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে ফাঁকা গুলি ও টিয়ার গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। তবে সমস্যা সমাধানের আশ্বাস দিয়েছেন তুর্কি প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইপ এরদোয়ান।

এদিকে বিশ্বব্যাপী নারীর ক্ষমতায়ন, সামাজিক শিক্ষার বিস্তারের মাধ্যমে নারীর প্রতি সহিংসতা নিরসন সম্ভব বলে মত বিশ্লেষকদের।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৬:২৬ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ২৭ নভেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]