শনিবার ২৫শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

১৫০ রানে অলআউট বাংলাদেশ, ফলোঅনে ফেলেনি ভারত

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শুক্রবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০২২ | প্রিন্ট

১৫০ রানে অলআউট বাংলাদেশ, ফলোঅনে ফেলেনি ভারত

চট্টগ্রাম টেস্টে ভারতের ৪০৪ রানের জবাবে প্রথম ইনিংসে মাত্র ১৫০ রানে অলআউট হয়েছে বাংলাদেশ। বাংলাদেশের হয়ে কেউই ত্রিশের ঘরও পেরোতে পারেননি। সর্বোচ্চ ২৮ রান করেন মুশফিকুর রহিম। টাইগাররা ২৫৪ রানে পিছিয়ে থাকলেও তাদের ফলোঅনে ফেলেনি টিম ইন্ডিয়া।

ফলোঅনের শঙ্কায় পড়া বাংলাদেশের হয়ে তৃতীয় দিন শুরু করেন মেহেদী হাসান মিরাজ ও এবাদত হোসেন। দ্বিতীয় দিন শেষে মিরাজ ১৬ ও এবাদত ১৩ রানে অপরাজিত ছিলেন। কুলদীপের বলে এবাদত আউট হন আরও ৪ রান করার পর। মিরাজ কিছুক্ষণ টিকলেও খুব বেশি রান করতে পারেননি তিনি। আউট হন ব্যক্তিগত ২৫ রানে। ভারতের হয়ে ৫টি উইকেট নেন কুলদীপ যাদব। মোহাম্মদ সিরাজ পান ৩ উইকেট। একটি করে উইকেট নেন উমেশ যাদব ও অক্ষর প্যাটেল।

এর আগে ভারতের প্রথম ইনিংসের ৪০৪ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি বাংলাদেশের। ইনিংসের প্রথম বলেই বিদায় নেন নাজমুল হোসেন শান্ত। মোহাম্মদ সিরাজের করা ওয়াইড লেংথের বলে উইকেটরক্ষক রিশভ পন্তকে ক্যাচ দেন তিনি। ওয়ানডাউনে নামা ইয়াসির আলি এসেও ক্রিজে বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। উমেশ যাদবের বলে ইনসাইড-এজ হয়ে স্টাম্প হারিয়ে ফেলেন তিনি। ফেরার আগে ১৭ বলে ৪ রান করেন ইয়াসির।

দুই উইকেট হারিয়ে ফেলার পর লিটন দাস ও জাকির হাসানের ব্যাটে আক্রমণ শুরু করে বাংলাদেশ। টাইগারদের সেই আক্রমণ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়নি। আশা-ভরসার পাত্র লিটন দাসকে ফিরিয়ে তাতে বাগড়া দেন ভারতের মোহাম্মদ সিরাজ। লিটন আউট হন ব্যক্তিগত ২৪ রানে। ৩০ বলে তার ইনিংসে ছিল ৫টি ছারের মার। অভিষিক্ত জাকির হাসানও জ্বলে উঠতে পারেননি। ভালো ইনটেন্ট দেখিয়েও তিনি আউট সিরাজের বলে, ২০ রানে।

জাকিরের বিদায়ের পর মুশফিকুর রহিমকে নিয়ে কিছুটা সময় অতিবাহিত করেন সাকিব আল হাসান। ২৫ বল খেলে ৩ রান করে তিনি কুলদীপ যাদবের শিকারে পরিণত হন। সাকিবের পর মুশফিকুর রহিম ও নুরুল হাসানকেও তুলে নেন যাদব। মুশি ২৮ ও নুরুল স্কোরবোর্ডে ১৬ রান যোগ করেন। ফলোঅনের শঙ্কায় পড়া টাইগাররা মেহেদী হাসান মিরাজ ও এবাদত হোসেনের ব্যাটে ১৩৩ রান নিয়ে দ্বিতীয় দিন শেষ করে।

প্রথম ইনিংসে সব কটি উইকেট হারিয়ে ৪০৪ রান সংগ্রহ করে ভারত। চেতেশ্বর পূজারা ও শ্রেয়াস আইয়ার, দুজনেই আউট হন শতকের কাছাকাছি গিয়ে। বাংলাদেশের বোলিং লাইনআপের বিপক্ষে পূজারা ৯০ ও আইয়ার ৮৬ রান করেন। হাফসেঞ্চুরি করেন রবিচন্দ্রন অশ্বিন। বিপরীতে তাইজুল ইসলাম ও মেহেদী হাসান মিরাজ, দুজনেই পান ৪টি করে উইকেট।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৪:৩৬ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০২২

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]