মঙ্গলবার ৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ | ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ

কাঞ্চন মুন্সীর ৭৪তম মৃত্যুবার্ষিকী: বর্ণাঢ্য কর্মজীবন আলোচনায় কাঞ্চন মুন্সীকে স্মরণ

আলফাডাঙ্গা (ফরিদপুর) প্রতিনিধি:   |   বুধবার, ০৪ জানুয়ারি ২০২৩ | প্রিন্ট

কাঞ্চন মুন্সীর ৭৪তম মৃত্যুবার্ষিকী: বর্ণাঢ্য কর্মজীবন আলোচনায় কাঞ্চন মুন্সীকে স্মরণ

ফরিদপুরের আলফাডাঙ্গা উপজেলার কামারগ্রামকে শিক্ষিত জনগোষ্ঠীর অঞ্চল হিসেবে গড়ে তুলতে ১৯৩৭ সালে ‘কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমী’ নামে একটি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান গড়ে তুলেছিলেন এলাকার তৎকালীন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী ও সমাজসেবক কাঞ্চন মুন্সী। বিদ্যোৎসাহী এই ব্যক্তির একক উদ্যোগ, চেষ্টা আর সদিচ্ছায় অন্ধকার থেকে শিক্ষা, সংস্কৃতিসহ সবক্ষেত্রে আলোকিত হয়েছে এই অঞ্চলটি।

কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমী প্রতিষ্ঠা করে গোটা আলফাডাঙ্গা উপজেলায় সর্বপ্রথম কাঞ্চন মুন্সী শিক্ষার বাতি জ্বালিয়েছিলেন। তিনি যদি সেদিন স্কুল প্রতিষ্ঠা না করতেন তাহলে গ্রামের অনেকেই ক্ষেতে-খামারে কাজ করে দিন পার করতে হতো। ভালো কোনো কর্মক্ষেত্রে যেতে পারতেন না এ অঞ্চলের অনেকেই।

মঙ্গলবার সকাল ১১টায় কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমী মাঠে কাঞ্চন মুন্সীর ৭৪তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আয়োজিত স্মরণসভা ও দোয়া মাহফিলে এসব কথা বলেন আলোচকরা। কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমীর প্রধান শিক্ষক মো. জাকির হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় কাঞ্চন মুন্সীর বর্ণাঢ্য কর্মজীবনের নানা দিক তুলে ধরা হয়।

সভাপতির বক্তব্যে প্রধান শিক্ষক জাকির হোসেন বলেন, ‘এ এলাকায় শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দিতে মরহুম কাঞ্চন মুন্সী ১৯৩৭ সালে প্রতিষ্ঠা করেছিলেন কাঞ্চন একাডেমী। যা এখনো আলফাডাঙ্গা উপজেলার স্বনামধন্য ও ঐতিহ্যবাহী বিদ্যাপীঠ। তিনি স্কুলটি প্রতিষ্ঠা করেছিলেন বলে আজ আমরা এখানে বসে তাকে স্মরণ করতে পারছি। কাঞ্চন মুন্সী একাডেমীতে পড়াশোনা করেছেন এমন শিক্ষার্থীদের অনেকেই সরকারের সর্বোচ্চ পদস্থ কর্মকর্তা হয়েছেন।’

আলফাডাঙ্গা আদর্শ কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ মুজিবুর রহমান মুজিব বলেন, ‘কাঞ্চন মুন্সী ছিলেন ক্ষণজন্মা একজন পুরুষ। ছিলেন শিক্ষানুরাগী। মানবতাবাদী। অসহায়, দরিদ্র মানুষের কল্যাণে আজীবন নিজেকে বিলিয়ে দিয়েছেন। নিজের কষ্টার্জিত সম্পদে গড়েছেন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, দাতব্য চিকিৎসালয়। কোটি, কোটি টাকার নিজের জমি বিলিয়ে দিয়েছেন কবরস্থান, ঈদগাহ, মসজিদসহ ধর্মীয় ও সামাজিক কল্যাণের কাজে।

গোপালপুর ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান খান সাইফুল ইসলাম বলেন, কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমী প্রতিষ্ঠা করে গোটা আলফাডাঙ্গা থানায় সর্বপ্রথম তিনিই শিক্ষার বাতি জ্বালিয়েছিলেন। তারই সুসন্তান মরহুম মুন্সী বজলার রহমান কাঞ্চন একাডেমীকে যে ৯০ শতাংশেরও বেশি জমি দান করেন সেই জায়গায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা আলফাডাঙ্গাবাসীকে উপহার দিয়েছেন টেকনিক্যাল ট্রেনিং সেন্টার (টিটিসি)। গোটা অঞ্চল আজ শহরের চেহারায় রূপ নিয়েছে। মরহুম কাঞ্চন মুন্সীর কল্যাণে গোটা অঞ্চল ঝলমলে এক জনপদে রূপান্তরিত হয়েছে।

গোপালপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি মো. মোনায়েম খান বলেন, শুধু কাঞ্চন একাডেমী নয়, তিনি প্রাথমিক বিদ্যালয়ও স্থাপন করেছেন। এছাড়া ঈদগাহ, হাসপাতাল ও কবরস্থান স্থাপন করে মানুষের মধ্যে তিনি চিরঅমর হয়ে আছেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা সুজা মিয়া বলেন, মরহুম কাঞ্চন মুন্সী কর্মস্থল কলকাতা থেকে জাহাজে করে গ্রামে আসতেন। জাহাজ থেকে নামার আগে শত শত মানুষ তার জন্য অপেক্ষা করতেন। কার কী প্রয়োজন সব তিনি শুনতেন। আর্থিক সাহায্য-সহযোগিতার পাশাপাশি বেকার জনগোষ্ঠীকে কর্মসংস্থানেরও সুযোগ করে দিতেন।

বীর মুক্তিযোদ্ধা ওলিয়ার রহমান বলেন, তিনি সুদূর কলকাতা বসে আলফাডাঙ্গাবাসীর কথা ভাবতেন। কীভাবে এলাকার উন্নয়ন করা যায় এই চিন্তা করতেন। জীবনভর তিনি মানুষের জীবনমান উন্নয়নে সহায়তা করেছেন। মানুষকে আলোকিত করেছেন। তিনি এই গ্রামে জন্মেছিলেন বলেই পার্শ্ববর্তী অনেক গ্রামের আগে এখানে উন্নয়নের ছোঁয়া লেগেছিল।

সভায় আরও বক্তব্য দেন- উপজেলা কৃষকলীগের আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সচিব খান আমিরুল ইসলাম, গোপালপুর ইউপি সদস্য নজরুল ইসলাম, মকিবুল ইসলাম মক্কা, বিল্লাল হেসেন, স্কুল পরিচালনা পর্ষদের সদস্য আনিসুল ইসলাম মাহমুদ, মনিরুল ইসলাম লাবলু, কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমীর শিক্ষক তাজিকুর রহমান, আবিদুর রহমান, গোপালপুর ইউপি সদস্য টিটন মোল্লা প্রমুখ।

কামারগ্রাম বেগম শাহানারা একাডেমির পরিচালক আমিনুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা আলী হোসেন, একাডেমীর শিক্ষক-শিক্ষার্থী ও অভিভাবকসহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিরা স্মরণসভায় উপস্থিত ছিলেন।

১৯৪৯ সালের ৪ জানুয়ারি মারা যান কাঞ্চন মুন্সী। তার কর্মময় বর্ণাঢ্য জীবনের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে সমাজকল্যাণমূলক সংস্থা কাঞ্চন মুন্সী ফাউন্ডেশন। এই ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান আরিফুর রহমান দোলন। তিনি কাঞ্চন মুন্সীর প্রপৌত্র। পাঠকপ্রিয় দৈনিক ঢাকা টাইমস, ঢাকাটাইমস টোয়েন্টিফোর ডটকম ও জাতীয় সাপ্তাহিক এই সময় সম্পাদক। আরিফুর রহমান কামারগ্রাম কাঞ্চন একাডেমীর ম্যানেজিং কমিটিরও সভাপতি।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ১২:৪৩ অপরাহ্ণ | বুধবার, ০৪ জানুয়ারি ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]