মঙ্গলবার ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ডোপ টেস্টে চাকরি হারিয়েছেন ১১৬ পুলিশ

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শনিবার, ২৫ মার্চ ২০২৩ | প্রিন্ট

ডোপ টেস্টে চাকরি হারিয়েছেন ১১৬ পুলিশ

মাদকমুক্ত বাংলাদেশ পুলিশ গড়তে ডোপ টেস্ট চালুর পর থেকে এ পর্যন্ত ১১৬ জন সদস্য চাকরি হারিয়েছেন। এর মধ্যে কনস্টেবলরা মাদকাসক্ত হিসেবে বেশি শনাক্ত হয়েছেন।

জানা গেছে, ২০২০ সালে পুলিশকে মাদকমুক্ত করতে ডিএমপিতে ডোপ টেস্ট (মাদকাসক্ত চিহ্নিতের পরীক্ষা) চালু হয়। এ পর্যন্ত মাদকাসক্ত হিসেবে শনাক্ত হয়েছেন মোট ১২৬ জন। এদের মধ্যে চাকরি হয়েছেন ১১৬ জন। বাকি ১০ জনের মধ্যে একজন মারা গেছেন। একজন অবসরে চলে গেছেন। আর বাকিরা বিচার প্রক্রিয়ায় রয়েছেন।

শনাক্ত হওয়া ১২৬ পুলিশ সদস্যের মধ্যে ৯৮ জনই কনস্টেবল। একজন পুলিশ পরিদর্শক, ১১ জন এসআই, একজন সার্জেন্ট, সাতজন এএসআই ও আটজন নায়েক।

ডিএমপি সূত্রে জানা যায়, ২০২০ সালের ১০ মার্চ থেকে ২০২২ সালের ২৭ জুলাই পর্যন্ত ডোপ টেস্টে ১২০ জন পুলিশ সদস্যকে মাদকাসক্ত হিসেবে শনাক্ত করা হয়। পরবর্তীতে ২০২২ সালের নভেম্বর থেকে ২০২৩ সালের ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত মাত্র ছয়জন পুলিশ সদস্য মাদকাসক্ত হিসেবে শনাক্ত হন।

ডিএমপি কমিশনার খন্দকার গোলাম ফারুক বলেন, বাংলাদেশ পুলিশই প্রথম ডোপ টেস্টের ব্যবস্থা নিয়েছে। পুলিশ সদস্যদের যাকেই সন্দেহ হয়েছে তারই ডোপ টেস্ট (মাদকাসক্তি পরীক্ষা) করানো হয়েছে। ডোপ টেস্টে ধরা পড়লে তাদের বিরুদ্ধে চাকরিচ্যুতিসহ কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

তিনি বলেন, এখনো সন্দেহভাজন পুলিশ সদস্যকে এই ডোপ টেস্ট করা হয়। অনেকের চাকরি চলে যাওয়ায় পুলিশে মাদকাসক্তের সংখ্যা কমে গেছে। এই ডোপ টেস্ট অব্যাহত থাকবে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৮:১৯ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ২৫ মার্চ ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]