বুধবার ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

‘কাল ছিলাম কোটিপতি, আজ শূন্য’

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শনিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৩ | প্রিন্ট

‘কাল ছিলাম কোটিপতি, আজ শূন্য’

‘আমার সব শেষ। গতকালও কোটি টাকার বেশি মাল ছিল, আজ শূন্য। কার কাছে কী চাইবো? কাকে কী বলবো জানি না, কিছুই বুঝতে পারছি না’— কথাগুলো আহাজারি করছিলেন আর বলছিলেন ঢাকা নিউ সুপার মার্কেটের ব্যবসায়ী মাহবুব শেখ।

ঐ মার্কেটে তার চারটি দোকান রয়েছে। এসব দোকানের সব মালামাল পুড়ে গেছে। প্রতিটি দোকানে ৩০ লাখ টাকা করে অ্যাডভান্স দেওয়া বলে জানান তিনি।

শনিবার বেলা ১১টার দিকে এসব কথা বলেন এ ব্যবসায়ী।

পাশের মার্কেটের গুডলাক সুজের স্বত্বাধিকারী জাহাঙ্গীর বলেন, আমাদের এখানে আগুন লাগেনি। তবে নিউ সুপার মার্কেটের ওয়াল ঘেঁষে থাকা মার্কেট হিসেবে ঝুঁকি নিতে চাই না। তাই নিরাপদ দূরত্বে মাল রেখে দিয়েছি।

একই কথা বলেন বিক্রয়কর্মী মাসুম। তিনি বলেন, আমরা মালামাল দোকানের র‌্যাক থেকে নামিয়ে এনেছি। অন্য মার্কেটের ক্ষেত্রে দেখেছি একটা থেকে অপরটাই আগুন লেগেছিল। তাই সতর্ক হতেই মাল নামিয়ে রাখছি।

আগুনের এ ঘটার পেছনে ফুটওভার ব্রিজ ভাঙাকে দায়ী করছেন ব্যবসায়ীরা। তাদের অভিযোগ, ফুটওভার ব্রিজ ভাঙার সময় শর্টসার্কিটের মাধ্যমে আগুন লেগে যায়, যেটা আর নেভানো সম্ভব হয়নি। আমরা আপাতত ফুটওভার ব্রিজ না ভাঙার দাবি জানিয়েছিলাম। অন্তত রোজার মাসটা বন্ধের দাবি জানিয়েও কোনো লাভ হয়নি।

কথা হয় ওবায়দুল্লাহ রনি নামের এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে। মার্কেটটির দ্বিতীয় তলায় তার পাঁচটি দোকান রয়েছে, যেখানে এক কোটি টাকার মাল ছিল। রনি বলেন, গত রমজানে ব্রিজ ভাঙার কথা বলেছিল, আমরা রোজায় না ভাঙার কথা বললে সিটি কর্পোরেশন সায় দিয়েছিল। এখন মাত্র ৭ দিন পর ঈদ, এ সময় কেন ভাঙতে হবে! রোজার পরে ভাঙলেই হতো।

তিনি বলেন, আগুনের খবরে আমরা নিরাপত্তাকর্মীদের সঙ্গে কথা বলেছি। তারা জানিয়েছেন ফুটওভার ব্রিজ ভাঙার কাজ চলার সময় বিদ্যুতের শর্টসার্কিটে আগুন ধরে যায়।

এর আগে শনিবার ভোর ৫টা ৪০ মিনিটে নিউমার্কেটের নিউ সুপার মার্কেটে আগুন লাগার তথ্য জানতে পারে ফায়ার সার্ভিস। ৫টা ৪৩ মিনিটে আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসের প্রথম ইউনিট ঘটনাস্থলে পৌঁছে। এরপর একে একে ফায়ার সার্ভিসের ৩০টি ইউনিট আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে।

ফায়ার সার্ভিসের পাশাপাশি সেখানে যোগ দিয়েছে সেনা, নৌ ও বিমান বাহিনীর অগ্নিনির্বাপণী সাহায্যকারী দল। ঘটনাস্থলে র‌্যাব, পুলিশ, বিজিবি ও আনসার মোতায়েন করা হয়েছে। আগুন নিয়ন্ত্রণে ফায়ার সার্ভিসকে সহায়তা করেন স্বেচ্ছাসেবীরাও।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৭:২৩ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ১৫ এপ্রিল ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]