মঙ্গলবার ১৮ই জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৪ঠা আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ছেলেকে তুলে নিয়ে গৃহবধূকে ‘শারীরিক সম্পর্কে’ বাধ্য করেন রবিউল

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৩ | প্রিন্ট

ছেলেকে তুলে নিয়ে গৃহবধূকে ‘শারীরিক সম্পর্কে’ বাধ্য করেন রবিউল

মেহেরপুরের গাংনীতে গৃহবধূর পর্নোগ্রাফি আইনে দায়ের করা মামলার প্রধান আসামি রবিউল ইসলামকে (৫০) গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

গাংনী থানার ওসি আব্দুর রাজ্জাক বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

শনিবার দুপুরের দিকে গাংনী থানা পুলিশের একটি টিম অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করে। পরে বিকেলের দিকে তাকে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। রবিউল ইসলাম মেহেরপুর সদর উপজেলার মদনা গ্রামের বেলতলাপাড়া এলাকার মৃত ফজের আলীর ছেলে।

এর আগে গতকাল শুক্রবার (১৪ এপ্রিল) রাতে গাংনী পৌর এলাকার উত্তরপাড়া গ্রামের কাঠমিস্ত্রি জিয়াউর রহমানের স্ত্রী ও এক সন্তানের জননী তার বিরুদ্ধে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেন।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, রবিউল ইসলাম বিভিন্ন সময় ওই গৃহবধূকে প্রলোভন দেখিয়ে কুপ্রস্তাব দিতেন। এতে গৃহবধূ রাজি না হওয়ায় আসামি তাকে বিভিন্নভাবে ক্ষতিগ্রস্ত ও সম্মান নষ্ট করার ভয় দেখিয়ে তার সঙ্গে মোবাইলে কথা বলতে বাধ্য করেন। একপর্যায়ে জিয়াউর রহমানের স্ত্রী সংসার ছেড়ে রবিউল ইসলামকে বিয়ে করেন। সংসারের ১৫ দিনের মাথায় জানতে পারেন রবিউল ইসলামের আরও একটি স্ত্রী রয়েছেন। তাই তিনি রবিউল ইসলামের সঙ্গে সম্পর্ক ছিন্ন করে পূর্বের স্বামীর কাছে চলে আসেন। এরপর আসামি রবিউল ইসলাম আরও বেপরোয়া হয়ে ওঠেন। ফলে ১৫ দিনের সংসার জীবনে বিভিন্ন শারীরিক সম্পর্কের ভিডিও বর্তমান স্বামী জিয়াউর রহমানের কাছে পাঠিয়ে সংসার নষ্ট করার চেষ্টা করেন।

রবিউল ইসলাম এরপূর্বে গোপনে ধারণকৃত ছবি ও ভিডিও তার বর্তমান স্বামী জিয়াউর রহমানের কাছে পাঠানোর হুমকি দিয়ে শারীরিক সম্পর্কের জন্য কুপ্রস্তাব দেন। এতে বাদী নিরুপায় হয়ে কখনো চুয়াডাঙ্গা, কুষ্টিয়া, মেহেরপুর ও গাংনী এলাকার কয়েকটি বাড়িতে নিয়ে তার সঙ্গে অবৈধভাবে শারীরিক সম্পর্ক করেন।

কিছুদিন পূর্বে বাদী অবৈধ সম্পর্কে রাজি না হওয়ায় তার ১১ বছরের শিশু লিজনকে মোটরসাইকেলে বাড়ি পৌঁছে দেওয়ার কথা বলে তুলে নিয়ে যান। পরে বাদী রবিউল ইসলামের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্কে রাজি হলে ছেলেটিকে ছেড়ে দেওয়া হয় বলেও জানান জিয়াউর রহমানের স্ত্রী।

আসামি গত ২ এপ্রিল বাদীর নগ্ন ছবি ও ভিডিও মোবাইলের মাধ্যমে তার স্বামীর কাছে পাঠিয়ে সংসার ভেঙে দেওয়ার হুমকি দিতে থাকেন। এ ঘটনায় ভুক্তভোগী জিয়াউর রহমানের স্ত্রী শুক্রবার (১৪ এপ্রিল) রাতে রবিউল ইসলামকে আসামি করে পর্নোগ্রাফি নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেন।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২:০৩ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ১৬ এপ্রিল ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]