মঙ্গলবার ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

বিশ্ব সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবন দিবস আজ

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শুক্রবার, ২১ এপ্রিল ২০২৩ | প্রিন্ট

বিশ্ব সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবন দিবস আজ

মানুষের নিজস্ব কিছু প্রতিভা থাকে। কেউ বই লিখে, কেউ ছবি আঁকে, আবার কেউ গবেষণায় নতুন কিছু আবিষ্কার করে চিরস্মরণীয় হয়ে থাকেন। সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবন মানবসমস্যার সমাধান করে সভ্যতাকে এগিয়ে নিয়ে যায়। তবে এদিক দিয়ে বাংলাদেশ বেশ পিছিয়ে আছে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা। তাঁরা বলছেন, এ দেশের তরুণদের সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবনী কর্মকাণ্ডকে উৎসাহিত করতে হবে। এ জন্য সরকারকে ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া কোলাবোরেশনের মাধ্যমে একটি ইকোসিস্টেম তৈরি করতে হবে।

বিশ্ব সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবন দিবস আজ শুক্রবার। মানবসভ্যতার আরও সৃজনশীল বিকাশ এবং জাতিসংঘ ঘোষিত স্থিতিশীল লক্ষ্যমাত্রা অর্জনে নতুন উদ্ভাবনকে অনুপ্রাণিত করতে জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদে গৃহীত প্রস্তাব অনুযায়ী ২০১৮ সালের ২১ এপ্রিল থেকে প্রতি বছর দিবসটি পালন করা হচ্ছে।

এ দেশের শিক্ষিত তরুণদের সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবনে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে ভূমিকা রাখতে হবে বলে মনে করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ইনোভেশন ক্রিয়েটিভিটি অ্যান্ড এন্টারপ্রেনিউরশিপ সেন্টারের নির্বাহী পরিচালক রাশেদুর রহমান। তিনি বলেন, সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবনে তরুণদের, বিশেষ করে নারীদের ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। বর্তমানে এ দেশের জনসংখ্যার প্রায় ৬০ শতাংশই তরুণ। তাই এ দেশের উন্নয়নে তরুণদের এগিয়ে আসতে হবে। তরুণদের উৎসাহ ও যথাসম্ভব সুযোগ-সুবিধা দেওয়া গেলে উন্নত বাংলাদেশ গড়া সহজ হবে।সৃজনশীলতা, গবেষণা ও উদ্ভাবনে তুলনামূলকভাবে বাংলাদেশ বেশ পিছিয়ে আছে বলে মনে করছেন এই শিক্ষক। তিনি বলেন, উদ্ভাবনের সব সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান অনেক পিছিয়ে। এর কারণ আমাদের খুঁজতে হবে।

দেশকে এগিয়ে নিতে ‘ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া কোলাবোরেশন’ প্রয়োজনীয়তার ওপর তিনি জোর দিয়েছেন। তিনি বলেন, টেকসই উন্নয়ন তখনই সম্ভব হবে যখন ‘ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া কোলাবোরেশনের সংস্কৃতি এ দেশে সম্ভব হবে। এটি উন্নত দেশে রয়েছে। আমাদের দেশে এটি খুব একটা নেই। আমাদের শিক্ষকরা অনেক মেধাবী। কিন্তু এরপরও আমরা সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবনে পিছিয়ে আছি। এ দেশে সৃজনশীলতা ও উদ্ভাবন সহায়ক পরিবেশটাই এখনও তৈরি হয়নি। এ ক্ষেত্রে সরকারকে ইন্ডাস্ট্রি-একাডেমিয়া কোলাবোরেশনের জন্য একটি ইকোসিস্টেম তৈরি করতে হবে। অচিরেই এসব সমস্যার সমাধান করে আমাদের দেশের মানুষের সৃজনশীলতা কাজে লাগাতে বিজ্ঞানশিক্ষা ও গবেষণায় সরকারি সহায়তা বৃদ্ধির আহ্বান জানান তিনি।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৮:৩৪ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ২১ এপ্রিল ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]