মঙ্গলবার ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

টেকনাফে বিয়ে বাড়িতে ডাকাতির মূলহোতাসহ গ্রেফতার ২

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   রবিবার, ০৭ মে ২০২৩ | প্রিন্ট

টেকনাফে বিয়ে বাড়িতে ডাকাতির মূলহোতাসহ গ্রেফতার ২

একই মেয়েকে পছন্দ দুই প্রেমিক যুবকের। ঐ মেয়েকে পেতে দুজনেই কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে জড়িয়ে পড়েন দ্বন্দ্বে। পথের কাঁটা সরিয়ে ফেলতে বন্ধুদের নিয়ে রাতের আঁধারে হামলা চালান অপর প্রেমিকের ওপর।

নেত্রকোনার মোহনগঞ্জে রাতের আঁধারে শাহানুর মিয়া (১৮) নামের এক টাইলস মিস্ত্রিকে কুপিয়ে জখম করা হয়েছে। পরে তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে (মমেক) পাঠানো হয়েছে।

সোমবার দুপুরে মোহনগঞ্জ থানার দায়িত্বে থাকা পরিদর্শক (তদন্ত) শফিকুজ্জামান ডেইলি বাংলাদেশকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে, রোববার রাত সাড়ে ১০টার দিকে মোহনগঞ্জ পৌরশহরে দক্ষিণ দৌলতপুর শেখবাড়ির পাশে শিয়ালজানি খাল পাড়ে এ ঘটনা ঘটে।

শাহানুর মিয়া বারহাট্টা উপজেলার সদর ইউনিয়নের দুর্গাপুর গ্রামের মঞ্জিল খানের ছেলে এবং তিনি একজন টাইলস মিস্ত্রি। অভিযুক্ত যুবকের নাম মারুফ। তার বাড়ি মোহনগঞ্জ পৌরশহরে এবং তিনি একজন অটোরিকশাচালক।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, একই মেয়েকে পছন্দ করেন টাইলস মিস্ত্রি শাহানুর মিয়া ও অটোরিকশাচালক মারুফ। এ নিয়ে দুজনের মধ্যে দ্বন্দ্ব দেখা দেয়। এ ঘটনার জেরে রোববার রাতে শাহানুরকে ডেকে নিয়ে কুপিয়ে জখম করেন মারুফ ও তার বন্ধুরা।

আহত শাহানুরের বড় ভাই হাদিছ মিয়া বলেন, মোহনগঞ্জের মারুফ নামের এক অটোচালক শাহানুরকে ডেকে নিয়ে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে কুপিয়েছে। তার মাথা ও হাতে ৫ থেকে ৬টি কোপ লেগেছে। বর্তমানে মমেকে ভর্তি রয়েছে। তবে কী কারণে শাহানুরকে কুপিয়েছে তা জানি না। এ ঘটনায় মামলা দায়েরের জন্য অভিযোগ দেওয়া হয়েছে।

আহত শাহানুরের বন্ধু ধর্মপাশা উপজেলার মো. ইজাজুল বলেন, মারুফের সঙ্গে শাহানুরের কী দ্বন্দ্ব তা জানা নেই। রোববার সারাদিন আমার সঙ্গেই ছিল শাহানুর। রাতে মোহনগঞ্জে আসার পর মারুফ তাকে দেখা করার কথা বলে ডেকে নেয়। একপর্যায়ে চাইনিজ কুড়াল দিয়ে তাকে কুপিয়ে ফেলে রেখে যায়। রক্তাক্ত অবস্থায় শাহানুর নিজের গায়ের শার্ট দিয়ে ক্ষতস্থান বেঁধে সড়কে উঠে আমাদের কল দেয়। দ্রুত তাকে মমেক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

পরিদর্শক (তদন্ত) শফিকুজ্জামান বলেন, শুনেছি দুজন এক মেয়েকে পছন্দ করত। সেই দ্বন্দ্বে এ ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় থানায় লিখিত অভিযোগ দিতে বলা হয়েছে। তদন্ত করে এ বিষয়ে যথাযথ আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২:০২ পূর্বাহ্ণ | রবিবার, ০৭ মে ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]