মঙ্গলবার ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সেনাসমর্থিতদের ভরাডুবির সম্ভাবনা

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শুক্রবার, ১২ মে ২০২৩ | প্রিন্ট

সেনাসমর্থিতদের ভরাডুবির সম্ভাবনা

থাইল্যান্ডে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী রোববার। সামরিক অভ্যুত্থানে ক্ষমতা দখল করা প্রধানমন্ত্রী প্রায়ুত চ্যান ওচাকে থাই নাগরিকরা এবার প্রত্যাখ্যান করবে বলে আশা করা হচ্ছে। নির্বাসিত বিলিয়নেয়ার ও সাবেক প্রধানমন্ত্রী থাকসিন সিনাওয়াত্রার মেয়ে প্রধানমন্ত্রী হওয়ার দৌড়ে অনেকটা এগিয়ে রয়েছেন। ভোটের আগে জনমত জরিপগুলো ইঙ্গিত দিচ্ছে, এক দশকের সেনাসমর্থিত শাসনের বিরুদ্ধে রায় দিতে যাচ্ছেন থাই নাগরিকরা। খবর এএফপির।
নির্বাচনে প্রায়ুত চ্যান ওচার নতুন ইউনাইটেড থাই নেশন পার্টিকে চ্যালেঞ্জ ছুড়ে দিয়েছে থাকসিন সিনাওয়াত্রার মেয়ের নেতৃত্বাধীন পিউ থাই পার্টি। ২০০৬ সালে সামরিক অভ্যুত্থানে ক্ষমতাচ্যুত হয়েছিলেন থাকসিন সিনাওয়াত্রা। তাঁর ছোট মেয়ে ৩৬ বছর বয়সী পায়েটংটার্ন সিনাওয়াত্রা কয়েক মাস ধরেই জনমত জরিপগুলোয় ওচার চেয়ে এগিয়ে রয়েছেন। তবে জান্তার তৈরি করা ২০১৭ সালের সংবিধান পিউ থাই পার্টির প্রতিদ্বন্দ্বিতা করাকে কঠিন করে তুলতে পারে।
অতি ধনী রাজা মহা ভাজিরালংকর্নের ক্ষমতা সংস্কারের নজিরবিহীন আহ্বানে ২০২০ সালে রাজধানী ব্যাংককে তরুণদের নেতৃত্বাধীন গণতন্ত্রপন্থি ব্যাপক বিক্ষোভের পর দেশটিতে প্রথমবারের মতো এই নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বিশ্লেষকরা বলছেন, অর্থনৈতিক স্থবিরতা থেকে বেরিয়ে আসতে এবং মৌলিক স্বাধীনতা নিশ্চিত করতে সেনাসমর্থিত শাসনের বিপক্ষে রায় দেবে থাই নাগরিকরা।
সাবেক সেনাপ্রধান ওচা ২০১৪ সালে একটি অভ্যুত্থানের মাধ্যমে পায়েটংটার্নের ফুফু ইংলাক সিনাওয়াত্রাকে ক্ষমতাচ্যুত করে ক্ষমতা দখল করেছিলেন। এর পর ২০১৯ সালে বিতর্কিত নির্বাচনের পর বহুদলীয় জোটের প্রধান হয়ে প্রধানমন্ত্রী হন। ৬৯ বছর বয়সী ওচা এবারের নির্বাচনে লড়তে দলের মনোনয়ন পেলেও জনমত জরিপে ব্যাপকভাবে পিছিয়ে আছেন। জনপ্রিয়তা হারানোর পেছনে ক্রমবর্ধমান জীবনযাত্রার ব্যয় এবং মহামারি-পরবর্তী ধীর অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধারকে দায়ী করা হচ্ছে।
ব্যাংককের বাসিন্দা ওয়ান সিরিচাই বলেন, আমাদের দেশের দিকে তাকান। আপনি কি মনে করেন অর্থনীতি গত চার বছরে ভালো ছিল? তারা (ক্ষমতাসীন দল) দেশ শাসন করতে দক্ষ লোকদের ব্যবহার করেনি। তারা কেবল ঘনিষ্ঠদের সুবিধার জন্য স্বজনপ্রীতি করেছে। আমি শুধু চাই দক্ষ মানুষরা ক্ষমতায় এসে দেশকে বদলে দিক।
উচ্চ পারিবারিক ঋণ এবং ধীর প্রবৃদ্ধির পরিপ্রেক্ষিতে দলগুলো অর্থনৈতিক উন্নয়নের প্রচার চালাচ্ছে। পায়েটংটার্নের নেতৃত্বাধীন পিউ থাই পার্টি ১৬ বছরের বেশি বয়সী সব নাগরিককে ডিজিটাল ওয়ালেটে ১০ হাজার বাথ (৩০০ ডলার) অনুদান দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। অন্য দলগুলো ন্যূনতম মজুরি বাড়ানো এবং কৃষকদের নগদ অনুদান দেওয়ার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। পিউ থাই পার্টি ২০০১ সাল থেকে প্রতিটি নির্বাচনে সর্বাধিক আসন জিতেছে। তবে এর মধ্যে দুই প্রধানমন্ত্রীকে অভ্যুত্থানের মাধ্যমে এবং দু’জনকে আদালতের আদেশে ক্ষমতাচ্যুত করা হয়েছে।
মতামত জরিপে পিউ থাই পার্টির নিটকতম প্রতিদ্বন্দ্বী হলো মুভ ফরওয়ার্ড পার্টি (এমএফপি)। পুরোনো দলগুলোর প্রতি অসন্তুষ্ট তরুণদের সমর্থন পাওয়া এ দলটি ২০২০ সালের গণতন্ত্রপন্থি বিক্ষোভে রাস্তায় নেমেছিল। আদালতের আদেশে বিলুপ্ত হওয়া ফিউচার ফরওয়ার্ড পার্টি থেকে এমএফপি তৈরি হয়। বিলুপ্ত হওয়ার আগে ২০১৯ সালের নির্বাচনে তৃতীয় স্থান অর্জন করে সাড়া ফেলে দিয়েছিল দলটি। এবারও দলটি শক্ত প্রতিদ্বন্দ্বিতা তৈরি করতে পারে।
এদিকে মতামত জরিপে এগিয়ে থাকলেও ভূমিধস জয়ের সম্ভাবনা কম পিউ থাই পার্টির। অনেক বিশ্লেষক মনে করছেন, ক্ষমতা সুরক্ষিত করতে দলটিকে জোট অংশীদার খুঁজতে হবে। তবে কট্টরপন্থি এমএফপির সঙ্গে জোটবদ্ধ হলে আবারও সামরিক হস্তক্ষেপের ঝুঁকি বাড়তে পারে। ১৯৩২ সালে নিরঙ্কুশ রাজতন্ত্রের অবসানের পর থেকে এরই মধ্যে ডজনখানেক অভ্যুত্থানের সম্মুখীন হয়েছে থাইল্যান্ড।
চুলালংকর্ন ইউনিভার্সিটির রাজনৈতিক বিশ্লেষক সিরিপান নগসুয়ান সাওয়াসদি বলেন, পিউ থাই পার্টির বিপক্ষ শক্তি হিসেবে দাবি করা সত্ত্বেও সেনাসমর্থিত দলের সাবেক মিত্র দলগুলোর একটির সঙ্গে জোটবদ্ধ হওয়া সম্ভব বলে মনে হচ্ছে। আমরা সম্ভবত পুরোনো সরকারের মিত্রদের কোনো একটি দলের সঙ্গে তাদের জোট দেখব।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৩:২১ অপরাহ্ণ | শুক্রবার, ১২ মে ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

(239 বার পঠিত)
(204 বার পঠিত)
advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]