মঙ্গলবার ২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

মেসির সঙ্গে প্রথম দেখায় যে অদ্ভুদ কাণ্ড করেছিলেন অ্যাগুয়েরো

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শনিবার, ২৭ মে ২০২৩ | প্রিন্ট

মেসির সঙ্গে প্রথম দেখায় যে অদ্ভুদ কাণ্ড করেছিলেন অ্যাগুয়েরো

জাতীয় দলের জার্সিতে প্রায় দেড় যুগ কাঁধে কাঁধ মিলিয়ে খেলেছেন লিওনেল মেসি ও সার্জিও অ্যাগুয়েরো। স্বাভাবিকভাবেই তাদের দু’জনের সম্পর্ক সতীর্থের চেয়েও বেশিকিছু হয়ে দাঁড়িয়েছে। তবে এই জুটির শুরুটা ছিল খানিকটা ভিন্নই। লিওর সঙ্গে প্রথম দেখাতেই অদ্ভুদ কাণ্ড করে বসেছিলেন অ্যাগুয়েরো। যা নিয়ে পরবর্তীতে তাদের মধ্যে হাসির রোল পড়ে গিয়েছিল।

সম্প্রতি ফিফা প্লাসকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মেসির সঙ্গে প্রথম দেখার স্মৃতিচারণ করেছেন সার্জিও অ্যাগুয়েরো। তিনি বলেন, ‘আমার তখনো ১৭ বছর হয়নি। কয়েকটি প্রীতি ম্যাচের জন্য ডাকা হয় আমাদের। আমরা আর্জেন্টিনা ফুটবল অ্যাসোসিয়েশন (এএফএ) কমপ্লেক্সে ছিলাম। গারায়, ফরমিকা ও আরেকটি ছেলের সঙ্গে একটি টেবিলে বসা ছিলাম আমি। সে আমার পাশে বসে। আমি তার দিকে তাকাই। কিন্তু জানতাম না, সে কে!’

অ্যাগুয়েরো বলেন, “ওরা ফুটবল বুট সম্পর্কে আলোচনা করছিল। গারায় বলছিল যে, ওগুলো কত ভালো! তখন ওই ছেলেটি (মেসি) বলে, ‘তারা (বার্সেলোনা) এগুলো আমাকে যুক্তরাষ্ট্র থেকে এনে দিয়েছে।’ আমি ভাবছিলাম, এই ছেলেটা কোথা থেকে এসেছে?”

নিজের কৌতূহল মেটাতে মেসির কাছে গিয়ে নাম জিজ্ঞেস করেন অ্যাগুয়েরো। কিন্তু উত্তর শুনেও বুঝতে পারেননি তিনি, এই লিও মেসিই যে বার্সেলোনার আলোচিত সেই ছেলেটি।

আর্জেন্টাইন সাবেক স্ট্রাইকার বলেন, “এটি ঘিরে আমার ভেতরে খুঁতখুঁত করছিল। কিন্তু আমার এটি একবারও মনে হয়নি যে, এই ছেলেটিই বার্সেলোনা থেকে এসেছে। আমার ভেতর কৌতূহল ছিল এবং নিজেকে আটকাতে পারিনি। আমি জিজ্ঞেস করলাম, ‘তোমার নাম কী?’ উত্তর দিল, লিও।’ আবার জিজ্ঞেস করলাম, ‘তোমার শেষ নাম কী? সে বলল, মেসি।’ আমার কোনো ধারণাই ছিল না সে কে। তাই আবার তার শেষ নাম জিজ্ঞেস করলাম, যদি ভুল শুনে থাকি! সে আবারো বলল, মেসি। কিন্তু এটি আমার কাছে কিছুই মনে হয়নি।”

হাস্যরসের বিষয়টি জানিয়ে তিনি আরো বলেন, “এরপর গারায় ও ফরমিকা জোরে হাসতে শুরু করল। মেসিকে দেখিয়ে আমার নির্বুদ্ধিতায় মজা নিতে শুরু করল, তুমি জানো না, ও কে? তখন আমার মাথায় এলো! বার্সেলোনার সেই ছেলেটিই এই মেসি! তখন মেসিসহ আমরা সবাই হাসতে শুরু করলাম। এরপর থেকে বেশ কয়েকবার এটি নিয়ে হেসেছি আমরা।”

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৫:০৪ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ২৭ মে ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]