সোমবার ২২শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ৭ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সুইস ব্যাংক থেকে ১০ হাজার কোটি টাকা সরালেন বাংলাদেশিরা

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শুক্রবার, ২৩ জুন ২০২৩ | প্রিন্ট

মাত্র এক বছরে সুইস ব্যাংকগুলোতে রাখা প্রায় দশ হাজার কোটি টাকার আমানত সরিয়ে নিয়েছেন বাংলাদেশিরা। বৃহস্পতিবার (২২ জুন) সুইজারল্যান্ডের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের প্রকাশিত বার্ষিক ব্যাংকিং প্রতিবেদনে এ তথ্য পাওয়া গেছে।

গ্রাহকদের গোপনীয়তা কঠোরভাবে রক্ষার ব্যাপারে সুইজারল্যান্ডের ব্যাংকগুলোর খ্যাতি বিশ্বব্যাপী। এ কারণেই নিজেদের অর্থ জমা রাখতে সুইস ব্যাংকগুলোতে ভিড় জমান সারা বিশ্বের ধনীরা। সুইস ব্যাংকগুলোর এই কঠোর গোপনীয়তা নীতির কারণে যুগ যুগ ধরে বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে পাচার হওয়া অবৈধ অর্থেরও জনপ্রিয় গন্তব্য সুইজারল্যান্ড।

তবে সবাইকে অবাক করে দিয়ে ২০২২ সালে সুইজারল্যান্ডের ব্যাংকগুলোতে বাংলাদেশিদের টাকা রাখার পরিমাণ কমেছে রেকর্ড হারে। মাত্র এক বছরে দেশটির ব্যাংকগুলোতে বাংলাদেশিদের আমানত কমেছে প্রায় ৯৪ শতাংশ।

২০২২ সালে সুইস ব্যাংকগুলোতে বাংলাদেশি ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের নামে জমা ছিল ৫ কোটি ৫২ লাখ ৬৮ হাজার সুইস ফ্রাঁ। প্রতি সুইস ফ্রাঁর বিনিময় মূল্য ১২০ দশমিক ৬৮ টাকা ধরে বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ৬৬৬ কোটি টাকা। অথচ ২০২১ সালে সেখানে বাংলাদেশি ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠান জমা রেখেছিল ৮৭ কোটি ১১ লাখ সুইস ফ্রাঁ। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ১০ হাজার ৫১২ কোটি টাকা।

তার মানে ২০২১ থেকে ২০২২ এই এক বছরেই সুইস ব্যাংকগুলো থেকে বাংলাদেশি আমানতকারীরা তুলে নিয়েছেন ৮১ কোটি ৫৮ লাখ সুইস ফ্রাঁ বা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৯ হাজার ৮৪৫ কোটি টাকার সমপরিমাণ অর্থ।

সুইস ন্যাশনাল ব্যাংকের পরিসংখ্যানে দেখা যাচ্ছে, ২০২০ সালে সুইজারল্যান্ডের ব্যাংকগুলোতে বাংলাদেশি ব্যক্তি ও প্রতিষ্ঠানের পক্ষে জমা রাখা ছিল ৫৬ কোটি ফ্রাঁ। যেখানে ২০২০ থেকে ২০২১ সালের মধ্যে সুইস ব্যাংকে বাংলাদেশিদের জমা রাখা অর্থের পরিমাণ বেড়েছিল ৩০ কোটি ফ্রাঁ। সেখানে মাত্র এক বছরের ব্যবধানে সুইস ব্যাংকগুলোতে বাংলাদেশিদের জমা রাখা অর্থ মাত্র সাড়ে ৫ কোটি ফ্রাঁয় নেমে আসার বিষয়টি নিয়ে কৌতূহল সৃষ্টি হয়েছে।

তবে সুইস ন্যাশনাল ব্যাংকের এই বার্ষিক প্রতিবেদনে জমার পরিমাণ নেমে আসার ব্যাপারে কোনো ব্যাখ্যা দেয়া হয়নি। বৃহস্পতিবার প্রকাশিত এই পরিসংখ্যানে শুধু বাংলাদেশই নয়, উঠে আসে দক্ষিণ এশিয়াসহ বিশ্বের অন্যান্য দেশের নাগরিক ও প্রতিষ্ঠানের জমা রাখা অর্থের তথ্যও।

দক্ষিণ এশিয়া থেকে সুইস ব্যাংকে ২০২২ সালে সবচেয়ে বেশি অর্থ জমা রেখেছেন ভারতীয়রা। তাদের আমানতের পরিমাণ ৩৪০ কোটি সুইস ফ্রাঁ। এ ছাড়া পাকিস্তানিরা ৩৮ কোটি ৮৬ লাখ ও নেপালিরা জমা রেখেছেন ৪৮ কোটি ২০ লাখ ফ্রাঁর সমপরিমাণ অর্থ।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৩:৫৭ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ২৩ জুন ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

এ বিভাগের আরও খবর

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]