শুক্রবার ২৪শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১০ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সেই প্রযোজকের হাঁড়ির খবর ফাঁস করলেন জায়েদ খান

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   শুক্রবার, ১৩ অক্টোবর ২০২৩ | প্রিন্ট

সেই প্রযোজকের হাঁড়ির খবর ফাঁস করলেন জায়েদ খান

কলকাতার জনপ্রিয় অভিনেত্রী সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে জুটি বেঁধে দীর্ঘদিন পর ‘ছায়াবাজ’ সিনেমা দিয়ে ক্যামেরার সামনে ফিরেছিলেন ঢাকাই চিত্রনায়ক জায়েদ খান। তবে নানা বিতর্কের কারণে শুটিং শেষ না করেই সিনেমার কাজ বন্ধ হয়ে যায়। এর মূলে ছিলেন সিনেমার প্রযোজক মনিরুল ইসলাম। তার অপেশাদার আচরণের জন্যই শুটিং শেষ না করেই কলকাতায় পাড়ি জমান সায়ন্তিকা।

এ নিয়ে গণমাধ্যমে আবারও মুখ খুলেছেন জায়েদ খান। ফাঁস করেছেন প্রযোজকের হাঁড়ির খবর।

জায়েদ খান বলেন, আমি প্রযোজকের বিষয়ে আগে কিছু জানতাম না। পরিচালক তাজু কামরুলের সঙ্গে যা কথা হওয়ার হয়েছে। আমরা শিল্পীরা গল্প ও আমাদের চরিত্রের দিকে নজর দেই। এই ঘটনার পর জানতে পারি এর আগেও তিনটি সিনেমা তিনি প্রযোজনা করেছেন। তার একটিও শেষ হয়নি।

তিনি আরো বলেন, প্রযোজক শুরু থেকেই সবকিছু সস্তা চাচ্ছিলেন। সস্তা এক হোটেলে থাকার ব্যবস্থা করেছিলেন। পরে আমি বলে ভালো জায়গায় থাকার ব্যবস্থা করি। পরবর্তীতে দেখি নাস্তার কোনো ব্যবস্থা নেই, সেখানেও আমি যতটা পেরেছি নিজেদের ইন্ডাস্ট্রির মান রাখার চেষ্টা করেছি। পরে দেখলাম প্রযোজক নিজে বাজার করে নিজে সবার খাবারের দেখাশোনা করছেন। প্রযোজক সবাইকে মেপে ভাত দিতেন। আমার ১৫ বছরের ক্যারিয়ারে এমন বাজে অবস্থা দেখিনি।

শেষ পর্যন্ত সায়ন্তিকার সঙ্গে যারা কাজ করতেন তাদের পেমেন্ট আটকে দেন প্রযোজক। এরপরই শুটিংয়ে আসা বন্ধ করে দেন বলেও জানান এ চিত্রনায়ক।

গত ৩০ আগস্ট ঢাকায় এসেছিলেন সায়ন্তিকা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেদিন বিকেলেই শুটিংয়ে অংশ নিতে কক্সবাজারে যান তিনি। কথা ছিল ১২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত শুটিং করার। কিন্তু ৭ সেপ্টেম্বরই চলে যান এ তারকা।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৪:৩৮ পূর্বাহ্ণ | শুক্রবার, ১৩ অক্টোবর ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]