মঙ্গলবার ২৮শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১৪ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

ভয় পেলে যে আমল করবেন

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর ২০২৩ | প্রিন্ট

ভয় পেলে যে আমল করবেন

ভয় মানুষের স্বভাবজাত বিষয়। মানুষ নানা কারণে ভয় পায়। তবে কোরআনের ভাষায় ভয় পাওয়ার সবচেয়ে বড় কারণ আল্লাহর সঙ্গে সম্পর্কের দুর্বলতা। আল্লাহর উপর বিশ্বাস, ভরসা, আনুগত্য কমে গেলে মানুষের ভয় বেড়ে যায়। আল্লাহ তাআলা কোরআনে বলেন, ‘মনে রেখো, যারা আল্লাহর ওলি বা বন্ধু, তাদের কোনো ভয় নেই, তারা চিন্তান্বিত হবে না।’ (সুরা: ইউনুস, আয়াত ৬২)

ভয় পাওয়া স্বভাবজাত হলেও অতিরিক্ত ভয় পাওয়া দুর্বলতা। ভয় দূর করতে অবশ্যই আল্লাহর ইবাদত বাড়াতে হবে। তার সঙ্গে সম্পর্ক বৃদ্ধি করতে হবে। আল্লাহর সঙ্গে সম্পর্ক যত বেশি বৃদ্ধি পাবে মনের ভয়ও তত কমে আসবে। আমার সঙ্গে আল্লাহ আছেন, আল্লাহ আমার হেফাজত করবেন, এ কথা যখন আমার মনে থাকবে, তখন আমার ভয় পাওয়ার প্রশ্নই আসে না। এই জন্য মনের ভয় দূর করতে প্রথম কাজ, আল্লাহর ওপর ভরসা করা। আল্লাহ বলেন,

আর যে আল্লাহর ওপর তাওয়াক্কুল করে, আল্লাহই তার জন্য যথেষ্ট। (সুরা: তালাক, আয়াত ৩)

এছাড়া রাসুল সা. বলে দেয়া কিছু দোয়া পড়লে ভয় দূর হবে। মনে সাহস আসবে। এতে আল্লাহর সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি হবে, তাওয়াক্কুল-ভরসা বৃদ্ধি পাবে। হজরত আবদুল্লাহ ইবনে আব্বাস রা. থেকে বর্ণিত, নবী করিম সা. বিপদে আপদে, ভয়ের সময় এ দোয়া পাঠ করতে বলেছেন। ‘লা ইলাহা ইল্লাল্লাহুল আজিমুল হালিম। লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু রাব্বুল আরশিল আজিম। লা ইলাহা ইল্লাল্লাহু রাব্বুস সামাওয়াতি ওয়া রাব্বুল আরদ্বি ও রাব্বুল আরশিল কারিম।’ (বোখারি, হাদিস ৬৩৪৬)

অর্থ: মহান ও মহা ধৈর্যশীল আল্লাহ ছাড়া সত্যই কোনো উপাস্য নেই। মহান আরশের রব আল্লাহ ছাড়া সত্য কোনো উপাস্য নেই। আসমান ও জমিনের রব এবং মহান আরশের রব আল্লাহ ছাড়া সত্য কোনো উপাস্য নেই।’

নবী কারিম সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম কখনো শত্রু হতে ভয় পেলে আল্লাহর কাছে অনিষ্টতা থেকে আশ্রয় চাইতেন। যখন কেউ কোনো কিছু নিয়ে ভয় ভীতি অনুভব করবে তখন রাসুল সা. এর শেখানো দোয়া পাঠ করবে।

‘আল্লাহুম্মা ইন্না নাঝআলুকা ফি নুহুরিহিম, ওয়া নাউজুবিকা মিং শুরু রিহিম।’ অর্থ: ‘হে আল্লাহ আমরা তোমাকে শত্রুর মোকাবিলায় পেশ করছি, তুমি তাদের দমন কর আর তাদের অনিষ্ট থেকে তোমার কাছে আশ্রয় চাই। (আবু দাউদ, নাসাঈ, মিশকাত, রিয়াদুস সালিহিন ৯৮১)।

রাতে ঘুমের ঘোরে কেউ যদি ভয় পায় ‘প্রথমে আউজু বিল্লাহ’ পাঠ করবে। এরপর হাদিসে বর্ণিত দোয়াটি পাঠ করবে। উচ্চারণ:

أَعُوذُ بِكَلِمَاتِ اللَّهِ التَّامَّةِ مِنْ غَضَبِهِ وَعِقَابِهِ وَشَرِّ عِبَادِهِ وَمِنْ هَمَزَاتِ الشَّيَاطِينِ وَأَنْ يَحْضُرُونِ

‘আউযু বিকালীমাতিল্লাহিত তাম্মতি মিন গাদাবিহী ওয়া ইকাবিহী ওয়া শাররি ইবাদিহি ওয়া মিন হামাজাতিশ শায়াতিনি ওয়া আই ইয়াহদুরুন।’

অর্থ: আমি আল্লাহর পরিপূর্ণ বাণীসমূহের উসিলায় তার ক্রোধ ও শাস্তি থেকে, তার বান্দাদের অনিষ্ট থেকে, শয়তানের প্ররোচনা এবং আমার কাছে ওদের হাজির হওয়া থেকে আশ্রয় প্রার্থনা করছি। (তিরমিজি ৩৫২৮)।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৭:২০ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ১৭ অক্টোবর ২০২৩

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

(147 বার পঠিত)
advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]