মঙ্গলবার ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতল রংপুর

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ | প্রিন্ট

সহজ ম্যাচ কঠিন করে জিতল রংপুর

দশম বিপিএলের মহাগুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে ফরচুন বরিশালের বিপক্ষে সহজ ম্যাচটি কঠিন করে জিতেছে রংপুর রাইডার্স। ম্যাচটিতে বরিশালের দেওয়া লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে বেশ ভালোভাবেই এগোচ্ছিল রংপুর। কিন্তু বরিশালের স্পিন ঘূর্ণিতে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে তারা। তবে শেষ পর্যন্ত লড়াই করে জয়ের হাসিটা হেসেছে নুরুল-সাকিবের দলই।

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেটে ১৫১ রান সংগ্রহ করে ফরচুন বরিশাল। জবাবে ব্যাট করতে নেমে ১ উইকেট ও ৩ বল হাতে রেখে জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় রংপুর রাইডার্স। এই জয়ে ১৮ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের শীর্ষেই থাকলো দলটি।

রান তাড়া করতে নেমে শুরুটা ভালো হয়নি রংপুরের। দলটির হয়ে ইনিংস উদ্বোধনে নামেন ব্রেন্ডন কিং ও মুমিনুল হক। উইকেটে এসেই ঝোড়ো গতিতে রান তোলেন কিং। কিন্তু রানের খাতা খোলার আগেই সাজঘরে ফেরেন মুমিনুল।

ম্যাচের তৃতীয় ওভারে মুমিনুলককে প্যাভিলিয়নের পথ দেখান মেয়ার্স। পরে ক্রিজে আসেন সাকিব আল হাসান। তার সঙ্গে ৫০ রানের জুটি গড়েন কিং।

পাওয়ার প্লের শেষ বলটি ডাউন দ্য উইকেটে খেলতে গিয়ে উইকেট হারান কিং। মিরাজের ঘূর্ণিতে তাকে স্ট্যাম্পিং করেন মুশফিক। এতে ফিফটির আক্ষেপ নিয়েই সাজঘরে ফেরেন এ ক্যারিবীয় ব্যাটার (৪৫)।

এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট বিলিয়ে দেন সাকিব, নুুরুল হাসান ও শেখ মাহেদী। তাতে স্নায়ুচাপে পড়ে দলটি। সেই চাপ সামলে দলকে এগিয়ে নেয়ার চেষ্টা করেন নিশাম ও মুরস। তাদের জুটিতে বিপদ থেকে উদ্ধার হয় রংপুর। তবে তাদের বিদায়ে আবারো বিপর্যয়ে পড়ে নুরুলের দলটি।

শেষ উইকেটে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন হাসান মাহমুদ। বরিশালের হয়ে তিনটি করে উইকেট শিকার করেন মেহেদী মিরাজ ও ম্যাককয়। এছাড়া দুটি উইকেট শিকার করেন কাইল মেয়ার্স।

এর আগে টস জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন ফরচুন বরিশাল অধিনায়ক তামিম ইকবাল। বিপিএলের ইতিহাসে ১০০তম ম্যাচ খেলতে নেমেছিলেন তামিম। তবে তার বিশেষ ম্যাচটি স্মরণীয় হতে দেয়নি রংপুরের তারকা সাকিব আল হাসান।

বরিশালের হয়ে ইনিংস উদ্বোধনে নামেন তামিম ইকবাল ও টম ব্যান্টন। ইনিংসের শুরু থেকে ব্যান্টন রয়েসয়ে খেললেও ঝোড়ো ব্যাটিং করেন তামিম। তাদের জুটিতে ভালোভাবেই এগোচ্ছিল বরিশাল।

ম্যাচের পঞ্চম ওভারে আক্রমণে আসেন সাকিব আল হাসান। বোলিংয়ে এসেই সফল হন তিনি। ওভারের প্রথম বলেই তামিমকে সাজঘরের ফেরান। আউট হওয়ার আগে ৩৩ করেন এ বাঁহাতি ব্যাটার।

এরপর ক্রিজে আসেন কাইল মেয়ার্স। তার ঝোড়ো ব্যাটিংয়ে বড় সংগ্রহের পথে এগোতে থাকে বরিশাল। কিন্তু তার বিদায়ের পর খেই হারিয়ে ফেলে দলটি। সাজঘরের ফেরার আগে ৪৬ করেন তিনি।

ব্যাট হাতে ব্যর্থ হয়েছেন মুশফিকুর রহিম (৫), সৌম্য সরকার (০), মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ (৯) ও মেহেদী মিরাজ (৩)। শেষ মুহূর্তে সাইফউদ্দিন ও ম্যাককয়ের ছোট্ট ইনিংসে ভর করে ১৫১ রানে থামে বরিশালের ইনিংস।

রংপুরের হয়ে সর্বোচ্চ ৫ উইকেট শিকার করেন আবু হায়দার রনি।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২:২৮ পূর্বাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]