মঙ্গলবার ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

লাশের সঙ্গে ছিল ৪০টি স্বর্ণের বার

নিজস্ব প্রতিবেদক   |   বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০২৪ | প্রিন্ট

লাশের সঙ্গে ছিল ৪০টি স্বর্ণের বার

যশোর সীমান্তের ইছামতি নদী থেকে ৫ কেজি ২০০ গ্রাম ওজনের ৪০ পিচ স্বর্ণসহ মশিয়ার রহমান (৫৫) নামে এক ব্যক্তির মৃতদেহ উদ্ধার করেছ বর্ডার গার্ড বিজিবি সদস্যরা। বিজিবির তথ্য সূত্র বলছে, মশিয়ার ছিলেন একজন স্বর্ণ পাচারকারী।

বুধবার (১৩ মার্চ) দুপুর ২টায় শার্শার অগ্রভুলোট সীমান্তের ইছামতী নদী থেকে লাশটি উদ্ধার করা হয়।

মৃতের পরিবার জানান, গত ১০ মার্চ দুপুর ২টার সময় মশিয়ার রহমানকে তার বাড়ি থেকে রহিম ও জামাল নামের দুই ব্যক্তি ডেকে নিয়ে আসে। তার এক ঘণ্টা পর রহিমের ছেলে তাদেরকে খবর দেয় মশিয়ার রহমান বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত ঘেঁষা ইছামতী নদীতে ডুবে গেছে। এরপর বিষয়টি তারা বিজিবিকে জানায়। পরে বিজিবি ও বিএসএফ সমন্বয় করে ইছামতি নদীতে খোঁজ চলে। ১৩ মার্চ দুপুর ১২টার সময় লোক মুখে জানতে পারে ইছামতি নদীতে লাশ ভাসছে। পরে সেখানে গিয়ে লাশ শনাক্ত হয়। পরে বিজিবি ও পুলিশ লাশ উদ্ধার করে যশোর ২৫০ শয্যা জেনারেল হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করে।

খুলনা ২১ বিজিবি ব্যাটালিয়নের অধিনায়ক মুহাম্মদ খুরশীদ আনোয়ার জানান, সীমান্তের ইছামতী নদী থেকে ৫ কেজি ২০০ গ্রাম ওজনের ৪০ পিচ স্বর্ণের বারসহ মশিয়ার রহমান নামে এক স্বর্ণ পাচারকারী লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত লাশ শার্শা থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে। উদ্ধারকৃত স্বর্ণের আনুমানিক বাজার মূল্য ৫ কোটি ১০ লাখ টাকা।

শার্শা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুজ্জামান জানান, স্বর্ণসহ ইছামতী নদী থেকে মশিয়ার রহমান নামে এক ব্যক্তির লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য যশোর ২৫০ শয্যা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনাটি তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ২:৫৮ পূর্বাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ১৪ মার্চ ২০২৪

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]