শুক্রবার ২৬শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ | ১১ই শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ

জীবনে লক্ষ্য অর্জনের জন্য যেসব পদক্ষেপ নেয়া উচিত

নিজস্ব প্রতিবেদক:   |   শনিবার, ২২ জুন ২০২৪ | প্রিন্ট

জীবনে লক্ষ্য অর্জনের জন্য যেসব পদক্ষেপ নেয়া উচিত

প্রতিটি মানুষই চায় সাফল্য (লক্ষ্য পূরণ)। লক্ষ্য ছাড়া জীবনকে বলা হয় বৈঠা ছাড়া নৌকার মতো। লক্ষ্য নির্ধারণ করে রাখলে চলার পথ কিছুটা হলেও সহজ হয়ে যায়। আর সাফল্য অর্জনের মূল ভিত্তি হলো, তুমি আসলে কোন কাজে সফল হতে চাও– তা খুজে বের করা এবং সেটিকে জীবনের লক্ষ্য হিসেবে স্থির করা। আর লক্ষ্যের সংজ্ঞা হলো জীবনে সুনির্দিষ্ট করে কোনো কিছু পাওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহন করা।
তাই আজ আমরা জানবো জীবনের লক্ষ্য অর্জনের কিছু পদক্ষেপের কথা-

বাস্তবধর্মী লক্ষ্য নির্ধারণ করুন: অনেক সময় আমরা অবাস্তব লক্ষ্য নির্ধারণ করি যা করা আমাদের পক্ষে অসম্ভব হয়ে পরে, তখন কিছুদিন যাওয়ার পর হাল ছেড়ে দেই। ধরেন কেউ ওজন কমাতে চায় এবং সে যদি লক্ষ্য নির্ধারণ করে যে সে দশ দিনে ১০ কেজি ওজন কমাবে যা অসম্ভব। ওজন কমানোর জন্য প্রয়োজন সঠিক ডায়েট প্ল্যান ও ধৈর্য। তাই প্রথমে যতটুকু আপনাকে দিয়ে সম্ভব ঠিক ততটুকুই লক্ষ্য নির্ধারণ করতে হবে।

অর্থ খরচকে উদ্যোগ হিসেবে নিন: লক্ষ্য অর্জনে অধিকাংশ সময় প্রথম ধাপ হিসেবে আসে পড়ালেখা। সে জন্য অর্থ খরচ হওয়াই স্বাভাবিক। অনেকে বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়েন। এতে মধ্যবিত্তের বেশ অর্থ ধকল যায়। কিন্তু এই অর্থায়নে ভেঙ্গে পড়লে চলবে না। অর্থ খরচকে উদ্যোগ হিসেবে নিন।

নিজেকে উপহার দিন: ছোট ছোট পদক্ষেপ নিয়ে তা যদি পালন করতে সফল হন তাহলে নিজেকে উপহার দিন। উদ্দেশ্যে সফল হলে প্রিয় কোনো খাবার খেতে পারেন বা নিজেকে শখের কোনো কিছু কিনে দিতে পারেন। এতে কাজের প্রতি আগ্রহ আসবে। বেশিরভাগ ক্ষেত্রে আমরা ছোটখাটো সফলতাগুলোকে গুরুত্ব দেই না, কিন্তু প্রতিটি ছোট বড় সফলতা উপভোগ করতে হবে।

ডায়েরি লেখার অভ্যাস করুন: প্রথমে ডায়েরিতে লিখে ফেলুন আপনার লক্ষ্য কী, ঠিক কত দিনে আপনি আপনার লক্ষ্য পূরণ করতে চান এবং আপনার লক্ষ্যের পথে কী কী বাঁধা আসতে পারে। যখন আপনি কোথাও গুছিয়ে লিখে ফেলবেন তখন আপনার কাছে আপনার লক্ষ্যে পৌঁছানোটা সহজ মনে হবে। আপনার জার্নিতে যদি আপনি কোনো ভুল কিছু করে থাকেন তাও সাথে সাথে ডায়েরিতে লিখে ফেলুন।

অন্যের সঙ্গে নিজেকে তুলনা করবেন না: হতে পারে আপনার থেকে কম পরিশ্রম করেও কম সময় অনেকে নিজের লক্ষ্যে পৌঁছে গেছে। তা দেখে হতাশ হওয়া যাবে না কারণ তার সফলতার পেছনের গল্প তো আপনি জানেন না। আমাদের প্রত্যেকের লক্ষ্য ও জার্নি দুটোই আলাদা তাই নিজেকে অন্যের সাথে তুলনা না করে, নিজের পরিকল্পনা অনুযায়ী পথ চলতে হবে।

অন্যের সহযোগিতা নিন: কোনো জার্নি একা একা সম্পন্ন করা সম্ভব না। তাই কোনো সমস্যার সম্মুখীন হলে অবশ্যই বিশ্বস্ত কারো সঙ্গে কথা বলতে হবে। বিশেষ করে তাদের সাথে যারা আপনার নির্দিষ্ট লক্ষ্যে ইতিমধ্যে পৌঁছে গেছে। কারণ যারা আপনার পথ অতিক্রম করে চলে গিয়েছে তারা আপনাকে ভালো পথ নির্দেশনা দিতে পারবে। তাই আপনি যাদের বিশ্বস্ত মনে করেন তাদের সাথে কথা বলুন।

কেন শুরু করেছিলেন তা মনে রাখুন: অনেক সময় কোনো লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য কাজ করতে করতে হঠাৎ অনুপ্রেরণা হারিয়ে যায়। তখন আর নিজেকে বা নিজের লক্ষ্য নিয়ে কাজ করতে ইচ্ছে করে না। ঠিক সেই সময় চিন্তা করুন আপনি কেন শুরু করেছিলেন এবং এই কাজে সফল হতে পারলে আপনার জীবনে কী কী পরিবর্তন আসবে। আপনার নির্দিষ্ট লক্ষ্যের উদ্দেশ্য এর ফলাফল চিন্তা করলে আবার অনুপ্রেরণা ফিরে পাওয়া যাবে।

সঠিক বন্ধু নির্বাচন করুন: তাদের সঙ্গেই বন্ধুত্ব করুন যে আপনাকে লক্ষ্যে পৌঁছতে সাহায্য করবে। অনেক সময় কাউকে নিজের লক্ষ্যের কথা শেয়ার করলে তারা নেতিবাচক মন্তব্য করে আমাদের অনুপ্রেরণাকে আরো কমিয়ে দেয় কিংবা আপনার ইচ্ছেকে নিয়ে হাসাহাসি করে। এসব সব সঙ্গ ত্যাগ করা উচিত।

ব্যর্থতাকে মেনে নিতে হবে: অনেকে ব্যর্থতাকে মানতে পারে না। কোনো ভুল করে ফেললে নিজেকে ছোট মনে করে। যারা নিজেদের লক্ষ্যে পৌঁছে গেছে তাদের গল্প শুনলেও জানা যাবে অনেক ভুল করেই তারা আজ এই পর্যন্ত এসেছে। তাই নিজের জার্নিতে মাঝেমধ্যে কোনো ভুল করলে বা ব্যর্থ হলে তা মেনে নিয়ে পরের দিন আবার নতুন করে শুরু করতে হবে।

মেডিটেশন করতে পারেন: যেকোনো লক্ষ্যে অটুট থাকা অনেক বেশি জরুরি। বেশিরভাগ মানুষই নিজের লক্ষ্য স্থির থাকতে পারে না। একবার ব্যর্থ হলে চেষ্টা ছেড়ে দিয়ে নতুন লক্ষ্য নির্ধারণ করে এবং প্রতিনিয়ত অস্থিরতায় থাকে। মনকে শান্ত করতে মেডিটেশন করতে পারেন। মেডিটেশন আমাদের ধৈর্য বাড়ায় ও দীর্ঘ সময় কাজে মনোযোগ দিতে সাহায্য করে। তাই প্রতিদিন মেডিটেশন করার অভ্যাস গড়ে নিতে পারেন।

Facebook Comments Box
advertisement

Posted ৭:২৭ পূর্বাহ্ণ | শনিবার, ২২ জুন ২০২৪

ajkerograbani.com |

এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

advertisement
advertisement
advertisement

আর্কাইভ

সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র শনি রবি
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
সম্পাদক ও প্রকাশক
মুহা: সালাহউদ্দিন মিয়া
সম্পাদকীয় কার্যালয়

২ শহীদ তাজউদ্দিন আহমেদ সরণি, মগবাজার, ঢাকা-১২১৭। সম্পাদক কর্তৃক তুহিন প্রেস, ২১৯/২ ফকিরাপুল (১ম গলি), মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত ও প্রকাশিত।

ফোন : ০১৯১৪৭৫৩৮৬৮

E-mail: [email protected]