• শিরোনাম



    UTTARA UNITED COLLEGE

    #UUC_2020

    Posted by Uttara United College on Friday, 29 May 2020

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    কলগার্ল কালচারে নামী-দামি ভার্সিটির ছাত্রীরা

    অনলাইন ডেস্ক | ২৬ মে ২০১৭ | ১২:২৮ অপরাহ্ণ

    কলগার্ল কালচারে নামী-দামি ভার্সিটির ছাত্রীরা

    ঢাকা শহরের অলিতে গলিতে এসকর্ট বিজনেস কিংবা কল গার্ল নামে যে কালচারটা গড়ে উঠেছে সেটার লিডিং পজিশনে আছে নামী দামি ভার্সিটির উচ্চ শিক্ষিত মেয়েরা। আরেকটা মজার তথ্য দেই। এই এসকর্ট বিজনেসে ছেলেরাও এখন নিজেদের পুরুষত্ব বিক্রি করছে চড়া দামে।


    ইউরোপিয়ান বেস্ট ব্রোথেল নামে একটা ভিডিও ছিল ইউটিউবে। সেই ব্রোথেলের নানা দিক তুলে ধরেছিলেন একজন রাশিয়ান সাংবাদিক। একজন কল গার্লের সাথে কথা বলতে গিয়ে জানা গেলো, সে দুই সন্তানের মা। তার স্বামী আছে। এবং স্বামীর অনুমতি নিয়েই সে এই বিজনেসে নাম লিখিয়েছে। মজার ব্যাপার হল এটা নাকি একটা “”কাজ “”।


    অন্য সব চাকরি বাকরির মতোই এখানে সে রাত থেকে ভোর পর্যন্ত সময় দেয় সপ্তাহে ৫ দিন। এটা নিয়ে তার ফ্যামিলিতে কোন আপত্তি নাই (!!!!)

    বাংলাদেশের কথায় ফিরে আসি।

    এসকর্ট বিজনেসের এই রমরমা ব্যাবসায় মেয়েরা আগে পেটের দায়ে আসলেও, এখন আসে স্রেফ উচ্চাভিলাষী জীবনযাপনের জন্য। ঢাকার উত্তরায় এরকম কিছু ফ্ল্যাটের সন্ধান পাওয়া গেছে যেখানে “স্বামী স্ত্রী” উভয়েই এসকর্ট বিজনেসের সাথে জড়িত। স্বামী বাইরের লোককে ডেকে এনে স্ত্রীর ঘরে পাঠায়। মোটা অংকের টাকার বিনিময়ে একেবারে বাসায় বসে নিরাপদে এরকম বিজনেস চালিয়ে আসছিল বেশ কিছু যুগল। যেহেতু হোটেল বিজনেসের মতো উদোম নয় অতএব মানুষের চোখের আড়ালে খুব সহজেই বিজনেস চালানো সহজ ছিল।

    কলগার্লের যখন রমরমা বিজনেস তখন এসকর্টের খাতায় নাম লেখাতে ছেলেরাও পিছিয়ে নেই। বেশিরভাগ সময় এইসব ছেলেরা পুরুষত্ব বিক্রি করে কর্পোরেট বিজনেসম্যানদের স্ত্রীদের কাছে। কিংবা সেই সকল মহিলা যারা উদোম জীবন যাপনে অভ্যস্ত।

    মজার ব্যাপার হচ্ছে ভার্সিটির এই ছেলে মেয়েগুলোকে কখনোই আপনি ধরা পড়তে দেখবেন না। ধরা খায় রাস্তার ৩০০ টাকার মেয়েটা, কিংবা কোন সস্তা পতিতালয়ের কোন সস্তা মেয়ে। অনলাইন এবং অফলাইন সব জায়গায় এই এক্সপেন্সিভ গ্রুপটা বেশ আধিপত্যের সাথে বিজনেস করে। উচু লেভেলের কলগার্লের নামের তালিকা ঘাটলে অনেক মডেলকেও পাওয়া যাবে। মোদ্দা কথা হল ভার্সিটির মতো জায়গা থেকে যখন উচ্চ শিক্ষিত মেধাবি মানুষ বের হওয়ার কথা, তখন সেখান থেকে বের হয় উচ্চ শিক্ষিত এসকর্ট (ছেলে এবং মেয়ে উভয়েই)।

    এসকর্ট বিজনেসের সার কথাই এই পোস্টের মূল থিম নয়। কথা হচ্ছে, আমাদের আবেগ অনুভূতি আর পারস্পরিক সম্পর্কগুলো ঠিক কোথায় গিয়ে দাঁড়ালে পড়ে, একজন স্ত্রী তার স্বামীর কথায় আরেকজন পুরুষের সাথে বিছানা শেয়ার করতে সানন্দে রাজি হয়ে যায়। মানসিকতা ঠিক কোন লেভেলে গেলে একটা মেয়ে নিজের শরীর বিক্রি করে ২১ হাজার টাকার স্মার্ট ফোন কেনে। নৈতিকতা ঠিক কোন পর্যায়ে গেলে একটা ছেলে নিজের পুরুষত্ব বিক্রি করে টাকা ইনকাম করে!!

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4344