• শিরোনাম



    UTTARA UNITED COLLEGE

    #UUC_2020

    Posted by Uttara United College on Friday, 29 May 2020

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ম্যাচে কুকুরের কাণ্ড

    অগ্রবাণী ডেস্ক: | ২৮ মার্চ ২০১৭ | ৭:৫২ অপরাহ্ণ

    বাংলাদেশ-শ্রীলংকা ম্যাচে কুকুরের কাণ্ড

    অস্বাভাবিক মনে হলেও কুকুরটি মাঠ ঘুরে যাওয়ার পরই শ্রীলংকা ব্যাটিং লাইনে ঘটে গেল অঘটন! তখন ৫০ তম ওভারের দ্বিতীয় বল শেষ করেছেন তাসকিন। হঠাৎ মাঠের মধ্যে ঢুকে পড়লো একটি কুকুর। সাদা রঙের। মাথায় হালকা কালো ছোপ। বাংলাদেশি ক্রিকেটাররা তখন খেলা বাদ দিয়ে কুকুর তাড়াতে ব্যস্ত। পরে বাইরে থেকে স্বেচ্ছাসেবকরাও ছুটে আসেন। কুকুরও দৌড়ায়, স্বেচ্ছাসেবকরাও দৌড়ায়। বন্ধ হয়ে যায় খেলা। গ্যালারির দর্শকরা যেন এতে আনন্দে মেতে ওঠে। শিষ দেওয়ার পাশাপাশি শুরু করে দেয় চিৎকার-চেচামেচি। অবশেষে অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে কুকুরটিকে মাঠের বাইরে নিলে শুরু হয় খেলা।


    আজ মঙ্গলবার ডাম্বুলার আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ও শ্রীলংকার মধ্যকার দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক ওয়ানডে ম্যাচে এ ঘটনা ঘটে।


    এদিন টস হেরে বোলিং পায় বাংলাদেশ। শুরুর দিকে ক্রিজ আকড়ে থাকে শ্রীলংকার ব্যাটসম্যানরা। এগিয়ে যায় বড় লক্ষ্যের দিকে। শেষ দিকে এসে বলে আগুন ধরায় বোলাররা। ইনিংসের শেষ ওভারে এসে হ্যাটট্রিক করেন ডানহাতি পেসার তাসকিন আহমেদ। ৪৯.৫ ওভারেই গুটিয়ে যায় শ্রীলংকার ইনিংস।

    এদিকে কুকুরটি মাঠ ঘুরে যাওয়ার পরই পর পর তাসকিনের হাতে কুপোকাত হয় শ্রীলংকার তিন ব্যাটসম্যান। ওভারের দ্বিতীয় বলের পর কুকুরটি মাঠে ঢোকে। এরপর তৃতীয়, চতুর্থ ও পঞ্চম বলে পর পর আসেলে গুনারত্নে, সুরাঙ্গা লাকমাল এবং নুয়ান প্রদীপকে আউট করে হ্যাটট্রিক পূর্ণ করেন তাসকিন।

    এদিন বাংলাদেশকে ৩১২ রানের লক্ষ্য বেঁঁধে দিয়েছে স্বাগতিক শ্রীলংকা। এই ম্যাচটি জিততে পারলে এক ম্যাচ হাতে রেখেই সিরিজ দখলে নিতে পারবে টাইগাররা।

    -এলএস

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4344