• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    রাঙ্গার বিচার চান নূর হোসেনের মা

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ১১ নভেম্বর ২০১৯ | ৬:২১ অপরাহ্ণ

    রাঙ্গার বিচার চান নূর হোসেনের মা

    স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলনে পুলিশের গুলিতে নূর হোসেনকে ‘ইয়াবাখোর’, ‘ফেনসিডিলখোর’ বলায় জাতীয় পার্টির (জাপা) মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গাকে নিয়ে ব্যাপক সমালোচনা হচ্ছে নানা মহলে। এবার নূর হোসেনের মা মরিয়ম বিবিসহ পরিবারের সদস্যরা রাঙ্গার বিরুদ্ধে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন। মরিয়ম বিবি রাঙ্গাকে জনগণের কাছে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।


    সোমবার বিকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে রাঙ্গার বক্তব্যের প্রতিবাদে অবস্থান কর্মসূচি পালন করে নূর হোসেনের পরিবার। সেখানে তার মা ক্ষোভ প্রকাশ করে বলেন, ‘নূর হোসেন আমার একার ছেলে না, সে জনগণের ছেলে। সে জনগণের ছেলেকে নেশাখোর বলছে। সে যদি নেশাখোর হতো, তাহলে দেশের জন্য জান দিতে পারতো না। আমি জনগণের কাছে বিচার চাই, আল্লাহর কাছে বিচার চাই।’


    রবিবার জাতীয় পার্টির ঢাকা মহানগর উত্তর শাখার এক অনুষ্ঠানে নূর হোসেন ‘ইয়াবাখোর’, ‘ফেনসিডিলখোর’ ছিলেন বলে বক্তব্য দেন রাঙ্গা। এরপর থেকেই সমালোচনার ঝড় বইছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমেও রাঙ্গার বিচার চেয়েছেন সাধারণ জনগণ। তবে এ বিষয়ে রাঙ্গা আনুষ্ঠানিকভাবে এখনো মন্তব্য বা বিবৃতি পাওয়া যায়নি।

    জনগণের কাছে রাঙ্গাকে ক্ষমা চাওয়ার আহ্বান জানিয়ে অশ্রুসিক্ত কণ্ঠে নূর হোসেনের মা বলেন, ‘আমার ছেলে বুকে-পিঠে লেখে রাজপথে নামলো দেশের জন্য, জনগণের জন্য। কীসের জন্য নামলো? ও কি পাগল ছিল, ওর কি জ্ঞান, বিচার ছিল না? আজ ৩০ বছর পরে ওরে নেশাখোর বলা হলো। আমি এ বিচারের দায়ভার জনগণের ওপর ছেড়ে দিলাম। জনগণের কাছে তাকে (মসিউর রহমান রাঙ্গা) ক্ষমা চাইতে হবে।’

    রাঙ্গার বিরুদ্ধে মামলা করবেন কি-না এ প্রশ্নের জবাবে মরিয়ম বলেন, ‘আমি আমার ছেলেকে বলেছি, মামলা করা উচিত। আমি মামলা করতে রাজি আছি।’

    এদিকে কর্মসূচিতে নূর হোসেনের ভাই আলী হোসেন বলেন, ‘আমার ভাইকে দেশের জনগণ ভালোবাসে, শ্রদ্ধা জানায়। সে নূর হোসেনকে ‘ইয়াবাখোর’, ‘ফেনসিডিলখোর’ বলা হলো কেন? ৩৩ বছর আগে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ আমাদের বাসায় গিয়ে আমার বাবার কাছে ক্ষমা চেয়ে এসেছিলেন। তিনি সংসদেও ক্ষমা চেয়েছিলেন। আমরা তো ক্ষমা করেই দিয়েছিলাম, কেন ৩৩ বছর পর আবার সে পুরোনো ক্ষতে আঘাত করা হলো?’

    সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘আপনারাই বলেন, তখন কি দেশে ইয়াবা ছিল? ফেনসিডিল ছিল? আলী হোসেন বলেন, নূর হোসেন দেশের জন্য, জনগণের জন্য, গণতন্ত্রের জন্য আত্মাহুতি দিয়েছিল। সে জনগণের কাছেই আমরা বিচার চাই।’

    মামলার প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘পরিবারের সবাই এখনো বসিনি। পরিবারের অন্য মুরুব্বিরা বসে সিদ্ধান্ত নেবো।’

    অবস্থান কর্মসূচিতে আরও উপস্থিত ছিলেন- নূর হোসেনের ভাই দেলোয়ার হোসেন, আনোয়ার হোসেন, বোন শাহানা বেগমসহ পরিবারের অন্য সদস্যরা।

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4344