• শিরোনাম



    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...


    কয়রার পানিবন্দিদের চাওয়া

    | ২৩ জুন ২০২০ | ১২:০১ অপরাহ্ণ

    কয়রার পানিবন্দিদের চাওয়া

    বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে আলোচিত বিষয় হলো করোনা ভাইরাস,কোভিড-১৯।সারা বিশ্বে যখন থমথমে অবস্থা ঠিক তখনি ঘটে গেল এক হৃদয় বিদারক ঘটনা।গত ২০ শে মে ঘূর্ণিঝড় আম্পানে বাংলাদেশের যে কয়টি জেলায় সবথেকে বেশি ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে তন্মধ্যে সাতক্ষীরা জেলার শ্যামনগর,আশাশুনি ও খুলনা জেলার কয়রা থানা তীব্রভাবে ক্ষতির সম্মুখীন হয়েছে।আশাশুনি থানার প্রতাপনগর ইউনিয়নে প্রায় ৩/৪ জায়গায়,শ্যামনগরের পুরো চাকলা গ্রামটাই নদীর মধ্যে এবং কয়রা থানার ৭টি ইউনিয়নের ৫টি তেই নদী ভাঙন হয়েছে।সবমিলিয়ে প্রায় ১ লাখ মানুষ এখনো পানি বন্দি।কিন্তু এখন পর্যন্ত পাউবো কোন কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহণ করেনি।


    জনগণের স্বেচ্ছাশ্রমে কয়রা সদর ইউনিয়ন ও প্রতাপনগর ইউনিয়নের কুড়িকাহুনিয়ায় রিংবাঁধ দেয়া হয় গত কয়েকদিন আগে ।কিন্তু কতক্ষণ! দুইদিন পরেই আবার ভেঙে প্লাবিত হয় পুরো এলাকা। অধিকাংশের ঘরে খাবার নাই।যদিও কিছু দাতব্য সংস্থা কিছু শুকনা খাবার দিচ্ছে কিন্তু সেটাও পর্যাপ্ত নয়। সবমিলিয়ে উপকূলীয় জনজীবন দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে।


    উপকূলীয় এলাকার এসব বাসিন্দারা এরকম নদী ভাঙনের শিকার হচ্ছে বহু বছর ধরে।২০০৭ এর সিডর,২০০৯ এর আইলাইও সবচেয়ে ক্ষতি হয়েছিল এই উপকূল বাসীর।হাজার হাজার মানুষের ভিটেমাটি প্রতিবছর নদী গর্ভে বিলীন হয়ে যাচ্ছে।অনান্য বারের মতো এবারও প্রায় সবার ঘরে হাঁটু সমান পানি।অধিকাংশ টিউবওয়েল এর মুখগুলো ডুবে আছে পানির নিচে।ফলে,সুপেয় পানির সংকট দেখা দিয়েছে।দূষিত পানি পানের ফলে পানিবাহিত রোগও হানা দিয়েছে ইতোমধ্যে।আইলার পর এটাই সবথেকে বড় চ্যালেন্জ উপকূলবাসীর জন্য।

    অবহেলিত,নিমজ্জিত এই উপকূলবাসীর একটাই চাওয়া টেকসই বেড়িবাঁধ।কিন্তু বছরের পর বছর এখানে বাজেট পর্যাপ্ত হলেও পর্যাপ্ত কাজ হয় না।যার খেসারত টানতে হয় এই উপকূলবাসীর। প্রতিবছর কমপক্ষে ২/৩ বার এরকম নদীভাঙনের শিকার হতে হয়।ফলাফল হিসেবে প্রতিবছর কমছে হাজার হাজার হেক্টর ধানী জমি।মাছ চাষের ঘের গুলো দিন দিন হয়ে যাচ্ছে চাষের অনোপুযোগী।লবণাক্ত সহিষ্ণু স্বল্প সংখ্যক গাছ ব্যতীত অধিকাংশ গাছ মারা যাচ্ছে প্রতিবছর।গবাদিপশুর সংখ্যাও বর্তমানে নগন্য।বর্তমানের এই সংকটাপূর্ণ মুহূর্তে যতদিন বেড়িবাঁধ সম্পন্ন না হয় ততদিন উপকূলবাসী চায় পূনর্বাসন।

    অতএব,সরকার ও সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তাদের কাছে আকুল আবেদন,আপনারা আসুন এবং স্ব-শরীরে পর্যবেক্ষণ করুন।এই উপকূলবাসীকে বাঁচাতে হলে দ্রুত কার্যকরী পদক্ষেপ নিন।পাশাপাশি দ্রুত পূনর্বাসনের ব্যবস্থা করুন।উপকূলবাসীর চাওয়া পূর্ণ করুন, দ্রুত টেকসই বেড়িবাঁধ দেওয়ার ব্যবস্থা করুন।না হলে উপকূল সংলগ্ন এই জনপদের কোন হদিস থাকবে না।

    লেখক:
    নাছরুল্লাহ আল সুমন।
    কয়রা, খুলনা।
    মোবাঃ০১৯৯৮-২৩৪৭৮৬

    Facebook Comments

    কোন এলাকার খবর দেখতে চান...

    webnewsdesign.com

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    আর্কাইভ

    শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
     
    ১০
    ১১১২১৩১৪১৫১৬১৭
    ১৮১৯২০২১২২২৩২৪
    ২৫২৬২৭২৮২৯৩০৩১
  • ফেসবুকে আজকের অগ্রবাণী


  • Notice: ob_end_flush(): failed to send buffer of zlib output compression (0) in /home/ajkerogr/public_html/wp-includes/functions.php on line 4344